advertisement
আপনি দেখছেন

প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর আরো সহজ ও আধুনিক নিয়ম চালু করা হয়েছে। মাস্টার কার্ড, ওয়েস্টার্ন ইউনিয়ন ও বিকাশ যৌথভাবে কাজটি করছে। এর ফলে প্রবাসী বাংলাদেশিরা সরাসরি মোবাইলের মাধ্যমেই তাদের উপার্জনের অর্থ দেশে স্বজনদের কাছে পাঠাতে পারবেন।

mobile banking in bangladesh

গতকাল ওই তিন প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে চালু প্রবাসীদের জন্য রেমিট্যান্স পাঠানোর এই সেবাটির উদ্বোধন ঘোষণা করে। রাজধানীর একটি হোটেলে সেবাটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

নতুন এই সেবার আওতায় একজন বিকাশ গ্রাহক একটি একক লেনদেনের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৩৫ হাজার টাকা পাঠাতে পারবেন। দিনে পাঁচবার লেনদেনে সর্বোচ্চ ১ লাখ ১৫ হাজার টাকা পাঠানোর পাশাপাশি মাসে সর্বোচ্চ ২০ বার লেনদেন করার সুবিধা পাবেন। নতুন এই চালুর ফলে গ্রাহকরা এখন থেকে মোবাইল ফোনের অ্যাকাউন্টেই সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা রাখতে পারবেন বলে জানিয়ে প্রতিষ্ঠানগুলো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর সহজ ও সুন্দর এ উদ্যোগের মাধ্যমে ৮০ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশীরা লাভবান হতে পারবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এছাড়াও নতুন এ সেবার দ্বারা বিদেশ থেকে টাকা পাঠাতে বাড়তি পরিশ্রম আর ভোগান্তি থেকে গ্রাহকরা একেবারেই মুক্তি পাবেন বলেও জানিয়েছেন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। পাশাপাশি গ্রাহকদের অর্থ লেনদেনে নিরাপত্তার বিষয়টিও আগের চেয়ে জোরদার হবে বলেও জানিয়েছেন তারা।

এ প্রসঙ্গে সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো জানায়,বাংলাদেশে এখন প্রায় ১২ কোটি মানুষ মোবাইল ফোন ব্যবহার করে। এদের মধ্য ২ কোটি ২০ লাখ মানুষের বিকাশ অ্যাকাউন্ট রয়েছে। আর দেশজুড়ে বিকাশের এক লাখ ২০ হাজার এজেন্ট আছে। ওয়েস্টার্ন ইউনিয়নের মাধ্যমে বিকাশের এই সেবার আওতায় ২৪ ঘণ্টা এজেন্টদের কাছ থেকে টাকা তুলতে পারবেন ওই বিকাশ একাউন্টধারীরা। এছাড়াও গ্রাহকরা এই টাকা সরাসরি অন্য কারও অ্যাকাউন্টে পাঠানো, মোবাইল রিচার্জ, বিল পরিশোধ ও দোকানে কেনাকাটার কাজেও ব্যবহার করতে পারবেন।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন 

বিটিআরএ: ৩০ এপ্রিলের মধ্যে সব সিম নিবন্ধন সম্ভব নয়

ভাড়ায় পাওয়া যাচ্ছে আইফোন!

তারানা হালিম: সিম নিবন্ধন বিরোধীরা সবাই বিএনপি-জামায়াত

এসএমএস পাঠানোর খরচ বাড়ছে

sheikh mujib 2020