advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে খোয়া যাওয়া ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার ফেরত দেওয়ার প্রত্যাশা করেছে ফিলি​পাইন। আগামী তিন মাসের মধ্যে এই অর্থ ফেরত দেয়া হবে বলে জানিয়েছে দেশটির অ্যান্টি মানি লন্ডারিং কাউন্সিল (এএমএলসি)। মঙ্গলবার দেশটির গণমাধ্যমে এমন তথ্য জানানো হয়।

Bangladesh bank

কাউন্সিলের মহাপরিচালক জুলিয়া বাকাই আবাদ বলেছেন, আগামী তিন মাসের মধ্যে বাংলাদেশ সরকারকে অর্থ ফেরত দেয়া সম্ভব। এ বিষয়ে আমরা আশাবাদী। আমাদের পুরো টিম প্রক্রিয়াটি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে।

তিনি বলেন, চুরি যাওয়া অর্থ ফেরত পাঠানোর আইনি প্রক্রিয়ায় কোনো বিরোধী পক্ষ থাকবে না। আর যদি কোনো বিরোধী পক্ষ না থাকে তাহলে আদালতের নির্দেশে তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে বাংলাদেশ সরকারকে অর্থ ফেরত দেয়ার অনুমতি পাবে এএমএলসি।

জুলিয়া বাকাই আবাদ বলেন, আদালত পরবর্তী ২০ দিনের মধ্যে সংক্ষিপ্ত শুনানির দিন ধার্য করবেন। প্রভিশনাল অ্যাসেটস প্রিজার্ভেশন অর্ডার জারির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। আদালত তথ্য-প্রমাণ হাজিরের সুযোগ দিয়ে দ্রুত রায় কার্যকর করার আদেশ দিবেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে মোট ১০১ মিলিয়ন বা ১০ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলার চুরি হয়। ব্যাংকের সার্ভার হ্যাক করে ফিলিপাইনে চলে যায় ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার এবং বাকি দুই কোটি ডলার যায় শ্রীলংকায়। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কায় খোয়া যাওয়া অর্থ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

গোপন বৈঠকের কথা স্বীকার করেছেন শফিক রেহমান

পিতৃত্ব নিয়ে পিতার সন্দেহ, সন্তান খুন করলেন মা!

স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হবে অনিবন্ধিত সিম

sheikh mujib 2020