advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এবার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) গোরস্থানসমূহে কবর জিয়ারত, দোয়া ও মোনাজাত বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

banani cemeteries dnccডিএনসিসির কবরস্থানগুলোতে জিয়ারত বন্ধ ঘোষণা (ছবিতে বনানী কবরস্থান)

আজ মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএনসিসির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন। তিনি বলেন, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় জনস্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। এই সময়ের মধ্যে গোরস্থানসমূহে কবর জিয়ারত, দোয়া ও মোনাজাত করা যাবে না। তবে মৃতব্যক্তির দাফনের স্বাভাবিক কাজ অব্যাহত থাকবে।

এদিকে এখন থেকে ঘরে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। সাধারণ মুসল্লিদের মসজিদে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। মসজিদে জামাত যদি একান্তই করতে হয় তাহলে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে শুধু ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমরা মিলে করতে পারবেন।

দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর একাধিকবার মসজিদে নামাজ আদায়ের ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

প্রথমে জামাত সংক্ষিপ্ত করার অনুরোধ জানানো হয়েছিল। তারপর মুসল্লিদের ঘরে নামাজ আদায়ের অনুরোধ করা হয়েছিল। এবার ধর্ম মন্ত্রণালয় ঘরে নামাজ পড়ার জন্য সরাসরি নির্দেশ জারি করলো।

মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পাঁচ ওয়াক্তের নামাজের ক্ষেত্রে মসজিদে অনধিক ৫ জন এবং জুমার নামাজে অনধিক ১০ জন জামাতে অংশ নিতে পারবেন। অংশগ্রহণকারী থাকবেন ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেম।