advertisement
আপনি দেখছেন

মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে আকাশ পথ বন্ধ। প্রায় দুই মাস ধরে সকল প্রকার বিমান চলাচল বন্ধ আছে। কিন্তু হঠাৎ করে ব্যক্তিগত অর্থে উড়োজাহাজ ভাড়া করে বিত্তশালীরা একের পর এক দেশ ছাড়ছেন। সম্প্রতি এমন তিনটি ফ্লাইট হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে গেছে।

morshed sohelএম মোরশেদ খান (বাঁয়ে) ও সোহেল এফ রহমান

সর্বশেষ গতকাল শুক্রবার উড়োজাহাজ ভাড়া করে যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে দেশ ছেড়েছেন দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী গ্রুপ বেক্সিমকোর চেয়ারম্যান সোহেল এফ রহমান। সঙ্গে তার স্ত্রীও ছিলেন। সোহেল এফ রহমান বেক্সিমকো গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা এবং বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমানের বড় ভাই।

এর আগের দিন বৃহস্পতিবার একইভাবে দেশে ছেড়েছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এম মোরশেদ খান। সঙ্গে তার স্ত্রী নাসরিন খানও ছিলেন। ভাড়া করা ওই বিমানটি লন্ডনের উদ্দেশে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায়। উল্লেখ্য, মোরশেদ খান বেক্সিমকো গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের বেয়াই।

তারও আগে গত ২৫ মে সকাল ৯টা ১৩ মিনিটে দুই যাত্রীকে নিয়ে একটি এয়ার এম্বুলেন্স থাইল্যান্ডের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করে। কিন্তু ওই এম্বুলেন্সের দুই যাত্রীর কেউ রোগী ছিলেন না, ছিলেন সিকদার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার।

ron dipuরন হক সিকদার (বাঁয়ে) ও দিপু হক সিকদার

এক্সিম ব্যাংকের দুই পরিচালককে গুলি করে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার পর এভাবে দেশ থেকে পালিয়ে গেছেন তারা। অবশ্য পরবর্তীতে জানানো হয়, অনুমতি নিয়ে দেশে ছেড়েছেন তারা। যদিও পুলিশ বরাবরই বলে আসছিল, আসামী রন হক সিকদার ও দিপু হক সিকদারকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না!

sheikh mujib 2020