advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মাঝখানে কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ। তবে কোভিড-১৯ নেগেটিভ হলেও বর্তমানে তিনি আবার অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। মাঝের সুস্থতার সময় হাসপাতালে থাকা অবস্থায় দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন দেশের একটি শীর্ষ দৈনিকের সঙ্গে। তিনি বলেছেন, আমার দেশের বিএমএ (বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন) আমাকে বের করে দিয়েছে, কিন্তু ব্রিটিশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন আজীবন সদস্য বানিয়ে সম্মানিত করেছে।

dr jafarullah writing

তিনি আরো বলেন, সম্মান চেয়ে নেওয়ার জিনিস নয়। আমি সবসময় সত্য বলার চেষ্টা করেছি। ন্যায়ের পথে থেকে নিজের মতামত দেওয়ার চেষ্টা করেছি। তাতে যাদের খারাপ লেগেছে তারাই আমাকে বের করে দিয়েছে। এ নিয়ে আমি লেশমাত্রও ভাবিনা। আমার কাজ আমি দ্ব্যার্থহীনভাবে করে যাবো, তাতে যদি গঞ্জনাও জোটে, কোনো আপত্তি নেই।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) কেন আপনাকে বের করে দিল- এমন প্রশ্নে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, সেটা তারাই ভালো বলতে পারবে। তবে আমি যে কারণগুলো দেখতে পাই, সেগুলো হলো- আমি স্বাস্থ্যনীতি করার চেষ্টা করেছি, ওষুধনীতি করার চেষ্টা করেছি। তাতে হয়তো কোথাও তাদের স্বার্থে আঘাত লেগে থাকতে পারে।

gonosastho test kit

আরেকটি বিষয় হল, আমি চিকিৎসকদেরকে তাদের কর্তব্যের কথা বারবার স্মরণ করিয়ে দিয়েছি, যেটা তাদের পছন্দ হয়নি হয়তো। সেজন্যই হয়তো তারা আমাকে তাদের দল থেকে বের করে দিয়েছে- বলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

sheikh mujib 2020