advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি দিনকে দিন আরো খারাপ হচ্ছে। যদিও নমুনা পরীক্ষায় ফি নির্ধারণ করার পর থেকে গত কয়েকদিন ধরে শনাক্তকৃত কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমতে শুরু করেছে। কিন্তু এতে করে ঝুঁকি আরো বেড়ে যাচ্ছে। অনেক করোনা রোগী টাকার অভাবে নমুনা জমা দিতেও আসছে না। ফলে তার মাধ্যমে আরো অনেকেই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হচ্ছেন বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

cv 19 doctors

এদিকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের তালিকায় এবার বিপর্যস্ত ফ্রান্সকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ। বর্তমানে তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৭ নাম্বারে। আর ফ্রান্সের অবস্থান ১৮ নাম্বারে। তালিকায় বাংলাদেশের উপরে ১৬ নাম্বারে অবস্থান করছে জার্মানি।

আজ মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মরণঘাতী করোনাভাইরাসে আরো ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে ২ হাজার ১৫১ জনের মৃত্যু হলো। এ সময়ে আরো ৩ হাজার ২৭ জনকে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৪৫ জন। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ৭৮ হাজার ১০২ জন।

অন্যদিকে ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩৫ জনের শরীরে মরণব্যাধী এ ভাইরাসটি শনাক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৯ হাজার ৯২১ জন। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ৭৭ হাজার ৩০৮ জন।

corona virus photo

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিকে মারাত্মক বিপর্যয়ের মুখে পড়ে ইউরোপের এই দেশটি। তবে তারা বর্তমানে করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে মোটামুটি সক্ষম হয়েছে। ফলে সেখানে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার অনেকটাই কমে এসেছে।

তালিকায় ১৬ নাম্বারে অবস্থান করা জার্মানিতে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত করা হয়েছে ১ লাখ ৯৮ হাজার ৭৩ জন। এদের মধ্যে ৯ হাজার ৯২ জন মারা গেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ৭০০ জন। অর্থাৎ তারাও ইতোমধ্যে ভাইরাসটিকে প্রায় নিয়ন্ত্রণ করে ফেলেছে।

sheikh mujib 2020