advertisement
আপনি দেখছেন

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশ সফলভাবে করোনা সংকট মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়েছে। সেটা যদি নাই হতো, তাহলে বাংলাদেশে মৃত্যুর হার এত কম হতো না। আমাদের দেশে করোনায় মৃত্যুর হার উন্নত দেশগুলোর তুলনায় তো কম বটেই, এমনকি ভারত ও পাকিস্তানের চেয়েও কম।

hasan mahmud information ministerতথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

সোমবার বন্দর নগরী চট্টগ্রামে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। স্থানীয় সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে সভার আয়োজন করে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে)।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষজ্ঞরা যেসব মতামত দিয়েছিলেন তা ভুল প্রমাণ করেছে জননেত্রী শেখ হাসিনার সঠিক নেতৃত্ব। এর মাধ্যমে প্রমাণ হয়েছে যে, করোনাভাইরাসের মতো দুর্যোগও মোকাবেলা সম্ভব, যদি সঠিক নেতৃত্ব দেওয়া যায়।

information minister in ctgতথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদকে স্মারকলিপি দিচ্ছেন সাংবাদিক নেতারা

তিনি বলেন, আমাদের দেশের বিরোধী দল ঘর থেকে বের হয় না। অনলাইনে যুক্ত হয়ে ঘরের মধ্যে থেকে টেলিভিশনে উঁকি দিয়ে কথা বলে, আর সরকারের সমালোচনা করে। কিন্তু আমরা একদিনও ঘরে বসে থাকিনি। বরং সংকটের মধ্যেও জনগণের পাশে থাকতে গিয়ে আমাদের দলের অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন। যার মধ্যে সংসদ সদস্য ও মন্ত্রীও আছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে কী হতে পারে, সেটা আমরা জানি এবং তা জেনেই আমরা সংকট মোকাবেলায় জনগণের পাশে আছি। আমাদের এই শিক্ষা দিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা।

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম। সিইউজে নেতৃবৃন্দ এ সময় বিভিন্ন দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি তথ্যমন্ত্রীকে প্রদান করেন। মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, বিভাগীয় কমিশনার এবিএম আজাদ, জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন, সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি প্রমুখ।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, কোনো কাজের ভুল-ত্রুটি হলে সেটা যেমন গণমাধ্যমে আসে তেমনি ভালো কাজ হলে সেটাও আসা প্রয়োজন। কারণ গণমাধ্যম হচ্ছে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ। সংবাদপত্রের কাজই হলো সমাজকে সঠিক দিকে পরিচালিত করা, তথা সমাজের তৃতীয় নয়ন খুলে দেওয়া। রাষ্ট্রের দায়িত্বশীলরা সঠিকভাবে ভূমিকা রাখতে পারেন, সেক্ষেত্রে গণমাধ্যম সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করে।

চলমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সাংবাদিকরা সম্মুখসারিতে থেকে দায়িত্ব পালন করায় ধন্যবাদ দেন তথ্যমন্ত্রী।

sheikh mujib 2020