advertisement
আপনি দেখছেন

উন্নয়নের নামে এক রাস্তা তিনবার কাটতে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক সভায় বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা বলেন।

dscc meyor seikh fajle nur taposবক্তব্য দিচ্ছেন দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস

আধুনিক ও জনকল্যাণমূলক মহানগরী বিনির্মাণে বিভিন্ন সীমাবদ্ধতা চিহ্নিত করে সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন সংক্রান্ত সভাটি আয়োজন করে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। এতে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম।

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের উন্নয়ন কার্যক্রমে প্রতিটি সেবামূলক সংস্থার সমন্বয় প্রয়োজন। যাতে একই কাজের পুনরাবৃত্তি না হয়। এ জন্য ঢাকাকেন্দ্রিক সকল উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য আগামী ১ অক্টোবরের মধ্যে প্রতিটি সংস্থাকে সিটি কর্পোরেশনে সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে। এর মধ্যে কোনো সংস্থা সমন্বয় না করলে তাদের প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য আগামী বছরের অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয়ের পর সংস্থাগুলো তাদের প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে পারবে। তবে উন্নয়নের নামে এক রাস্তা তিনবার কাটতে দেওয়া হবে না। এক রাস্তা একবারই কেটে প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে। এ জন্য ডিএসসিসির অনুমতি নিতে হবে।

barrister taposh city election

সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে সমন্বয়ের বিষয়ে তিনি আরো বলেন, যারা প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে চায় তাদেরকে আগামী ১ অক্টোবরের মধ্যে ডিএসসিসির কার্যক্রমের সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে। এ সময়ের পর কেউ তদবির করলেও তাদের প্রকল্প বাস্তবায়নের অনুমতি দেওয়া হবে না। এবার সেটা এডিবি, বিশ্বব্যাংক, জিওবি বা অন্য কোনো সংস্থার ফান্ডিংয়ে করা হোক না কেনো। প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হলে সবাইকে ১ অক্টোবরের মধ্যে অবশ্যই ডিএসসিসির সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে।

এ সময় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের প্রতি পপুলেশন প্ল্যানিং করার আহ্বান ডিএসসিসির মেয়র বলেন, শুধু রাজধানীর উন্নয়ন নয়, এর আশপাশের গাজীপুর, মানিকগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, মুন্সিগঞ্জসহ অন্যান্য শহরে নগরায়ণ সৃষ্টি করা গেলে এবং সেখানে নাগরিকদের বসবাসের পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা দেওয়া গেলে ঢাকার ওপর চাপ কমবে।

sheikh mujib 2020