advertisement
আপনি দেখছেন

জাতীয় সংগীতের সুরে একটি ইসলামী সংগীত (হামদ) পরিবেশন করে তা ভিডিও আকারে ফেসবুক এবং ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করেন নাজিবুলতাহ আফসারী নামে এক আলেম। সেই অভিযোগে তার প্রতিষ্ঠান সিদ্ধেশ্বরী দারুল কোরআন আল আরাবিয়া মাদ্রাসার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

comilla muradnagar madrashaমাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করছে উপজেলা প্রশাসন

ঘটনাটি কুমিল্লার মুরাদনগরের। আজ রোববার দুপুরে মাদ্রাসাটির কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় উপজেলা প্রশাসন। মূলত প্রতিষ্ঠানটির কাগজপত্র এবং সঠিক অনুমোদন না থাকাতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পাশাপাশি কাগজপত্র ঠিক করে এবং অনুমোদন নিয়ে অতি দ্রুত মাদ্রাসাটি চালু করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন।

স্থানীয়রা জানান, সম্প্রতি মাদ্রাসার মুহতামিম নাজিবুলতাহ আফসারী জাতীয় সংগীতের সুর ব্যবহার করে একটি ইসলামী সংগীত পরিবেশনা করে তা ভিডিও আকারে নিজস্ব ফেসবুক এবং ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করেন। পরবর্তীতে বিষয়টি গণমাধ্যম এবং স্থানীয় প্রশাসনের নজরে আসলে তারা আজ মাদ্রাসা পরিদর্শনে আসেন।

map zila comilla

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাস এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাহিদ আহম্মেদ। তবে ঘটনাস্থলে অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে পাওয়া না গেলেও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়। পাশাপাশি ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে মুছে ফেলতে বলা হয়।

পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমকে মাদ্রাসার মুহতামিম নাজিবুলতাহ আফসারী বলেন, ঘটনাটি এমন হবে, তা তার জানা ছিল না। ইতোমধ্যে ভিডিওটি মুছে ফেলেছেন। এ ভুলের জন্য দেশবাসীর কাছেও ক্ষমা চান তিনি।

এ বিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অভিষেক দাস বলেন, জাতীয় সংগীতের সুর ব্যবহার করে একটি ইসলামী সংগীত পরিবেশন করা হয়েছে। যা কপিরাইট আইনের লংঘন এবং এর বিরুদ্ধে কী ধরনের ব্যবস্থা নেয়া যায়, তা নিয়ে আলোচনা করছি।

sheikh mujib 2020