advertisement
আপনি দেখছেন

করোনার টিকা নিয়ে বাংলাদেশে একটি মহল ব্যবসার পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের প্রতি ইঙ্গিত করে এ কথা বলেন তিনি।

dr zafrullah chowdhury 1ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ নাগরিক সমিতির এক মতবিনিময় সভায় করোনা টিকা নিয়ে কথা বলেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

করোনাকালের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই সময়েও কী রকম ব্যবসা করছে, দেখেন? করোনার টিকা সঠিক প্রমাণ হওয়ার আগেই আমরা ৫ ডলারে কিনছি। ৩ ডলারে কিনে ২ ডলার লাভে বিক্রি করা হচ্ছে।

সালমান এফ রহমানকে উদ্দেশ করে জাফরুল্লাহ আরো বলেন, টিকার জন্য সরকারের বরাদ্দ করা ১৫০০ কোটি টাকা তিনি মনে হয় অগ্রিম নিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু টিকার এখনো কোনো দেখা নেই।

জানা যায়, সালমান এফ রহমানের প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ৩ কোটি ডোজ করোনার টিকা কিনতে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি করেছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, সরকারের কেনা এই টিকার প্রতি ডোজের দাম পড়বে ৫ মার্কিন ডলার।

corona vaccineকরোনা ভ্যাকসিন

এ ছাড়া বেসরকারি খাতের জন্য আরো ১০ লাখ ডোজ করোনা টিকার কেনার বিষয়ে বেক্সিমকো চিন্তা-ভাবনা করছে বলে জানানো হয়েছে।

করোনার টিকা নিয়ে তাড়াহুড়া না করার পরামর্শ দিয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ধৈর্য ধরুন, নিরাপদ হলে বিনামূল্যেও আমরা পেতে পারি। সেজন্য গ্যাভি ও ইউনিসেফ আছে।

বাংলাদেশ টিকার জন্য ভারতের দিকে তাকিয়ে থাকায় সুযোগ হারিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, চীনের সিনোভ্যাক বিনামূল্যে বাংলাদেশে ট্রায়াল করতে চাইলেও আমরা অনুমতি দেইনি। এখন পেছনে ঘুরলেও তারা বলছে, সময় নেই।

মতবিনিময় সভায় করোনোকালে ২ কোটি গরীব ও মধ্যবিত্ত পরিবারকে প্রতি মাসে ৫ হাজার টাকা করে অনুদান দেয়া এবং ভাড়াটিয়াদের ঘর ভাড়া অর্ধেক করার দাবি জানানো হয়। এ জন্য ৫ দফা দাবি তুলে ধরেন রত্মা বাড়ৈ।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো. সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় গণফোরাম নেতা মোস্তফা মহসিন মন্টু, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মহসিন রশিদ ও মুহাম্মদ উল্ল্যাহ মধু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

sheikh mujib 2020