advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে করোনাভাইরাসের টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয় গত ২৭ জানুয়ারি। তবে এতদিন পরীক্ষামূলকভাবে মাত্র কয়েকশ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। ১০ দিন পর এবার গণহারে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হতে যাচ্ছে আগামীকাল রোববার। এজন্য সারাদেশে সম্পূর্ণভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে ১ হাজার ১৫টি কেন্দ্র এবং ২ হাজার ৪০২টি প্রশিক্ষিত স্বাস্থ্যকর্মীর দল।

corona vaccine 1 1

টিকা গ্রহণের জন্য নিবন্ধনের কথা শুরু থেকেই বলা হয়েছে। যারা ইতোমধ্যে নিবন্ধন করেছেন আজ (শনিবার) তাদের মোবাইলে এসএমএস পাঠিয়ে সময় এবং কেন্দ্রের নাম জানিয়ে দেওয়া হবে। যারা এখনো নিবন্ধন করেননি তাদের উদ্দেশ্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, যদি নিবন্ধনহীন কেউ টিকা নিতে কেন্দ্রে আসেন, তাহলে তাকে আমরা ফিরিয়ে দেবো না।

‘অনলাইনের পাশাপাশি প্রত্যেকটি কেন্দ্রে সরাসরি নিবন্ধনের সুযোগ রাখা হয়েছে। এমনকি যদি কারো নিবন্ধনের সময় কিংবা সুযোগ না থাকে তাহলেও তিনি টিকা পাবেন। সেক্ষেত্রে নিবন্ধনের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তির কাছে সমস্ত তথ্য দিয়ে গেলে পরে তিনি সেগুলো ডাটাবেইজে তুলে রাখবেন। তবে টিকাগ্রহীতাকে অবশ্যই জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে।’ বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

covishield india coming

আগামীকাল রোববার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় শুরু হবে এই মহাযজ্ঞ। রাজধানী ঢাকায় টিকা দেয়া হবে ৬৫ স্থানে, দায়িত্বে থাকবে ২০৬টি দল। ঢাকার বাইরে ভ্যাকসিন দেয়া হবে ৯৫৯ স্থানে। এসব জায়গায় ২ হাজার ১৯৬টি দল দায়িত্ব পালন করবেন। প্রত্যেকটি দলে থাকবে দুজন স্বাস্থ্যকর্মী ও দুজন স্বেচ্ছাসেবক। ৪ জনের একেকটি দল সর্বোচ্চ ১৫০ জনকে টিকা দিতে পারবেন।