advertisement
আপনি দেখছেন

নিজেদের আকাশসীমা রক্ষায় নিজেদেরকেই প্রস্তুতি নিতে হবে- এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি। গবেষণা চলছে, দেশেই যুদ্ধবিমান তৈরি করতে পারবো। প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা অন্তত ১০ ধাপ এগিয়ে নিতে কাজ করছে সরকার। অন্যান্য খাতগুলোর মতো এখানেও আমরা সফল হবো বলে বিশ্বাস করি।

bd pm hasina conference new

আজ মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিমানবাহিনীর ১১ স্কোয়াড্রন ও ২১ স্কোয়াড্রনকে জাতীয় পতাকা প্রদান অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিমানবাহিনীকে আরো আধুনিক করে গড়ে তুলতে যা যা করা প্রয়োজন আমরা তাই করবো। ইতোমধ্যে লালমনিরহাটে বঙ্গবন্ধু এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়ে গড়ে তোলা হয়েছে। আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ বিমান যুক্ত করা হচ্ছে। সর্বোপরি, বিমানবাহিনীকে একটি যুগোপযোগী বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে আমাদের চেষ্টার কোনো কমতি নেই।

‘আমাদের মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে বিমানবাহিনীর অবদান অনস্বীকার্য। জাতির পিতার আহ্বানে সাড়া দিয়ে সাধারণ মানুষের মতো তারাও যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। পাকিস্তানের অসংখ্য লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করে বিজয়কে তরান্বিত করেছে এই বাহিনীর সদস্যরা।’ যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

sheikh mujib 2020