advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমকে 'চোর' ও 'ডাকাত' বলে সম্বোধন করেছেন হাইকোর্ট। আজ মঙ্গলবার পিপলস লিজিং নিয়ে শুনানিতে ভার্চুয়ালি যুক্ত এক আইনজীবীকে উদ্দেশ্য করে বিচারক মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক বেঞ্চ ক্ষোভ প্রকাশ করে এ কথা বলেন।

shah alam bangladesh bankশাহ আলম

এদিন আদালতে উপস্থিত ৫১ ঋণখেলাপির পক্ষ হয়ে শুনানিতে অংশগ্রহণ করেন আইনজীবী মুশতাক আহমেদ।

আদালত বলেন, পি কে হালদার এবং এস কে সুর কী আকাম-কুকাম করছে সেটা তো চলবেই এবং পাশাপাশি আমরা দেখছি কিভাবে হাজার হাজার কোটি টাকা নিয়ে এ কোম্পানিকে বাঁচিয়ে রেখে অর্থ উদ্ধার করা যায়।

আমানতকারীরা আজকে খেয়ে না খেয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরছেন উল্লেখ করে আদালত আরো বলেন, ঋণগ্রহীতাদের কাছ থেকে টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। একটি কোম্পানি অবসায়ন করতে হলেও তার একটা প্রসিডিং আছে এবং আমরা সেটা দেখছি।

bangladesh high court 1হাইকোর্ট

এ সময় অনেক ঋণখেলাপি টাকা পরিশোধে আরো সময় প্রার্থনা করলে এক পর্যায়ে ভার্চুয়ালি যুক্ত আইনজীবীকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘শাহ আলম চোর, ডাকাত।’

এর আগে গত ৪ ফেব্রুয়ারি হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাটের তথ্য চাপা দেয়ার অভিযোগে বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের দায়িত্ব থেকে নির্বাহী পরিচালক শাহ আলমকে সরিয়ে দেয়া হয়। তবে এখনো একটি বিভাগের নির্বাহী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

sheikh mujib 2020