advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ ‘অত্যধিক উচ্চ মাত্রায়’ পৌঁছেছে উল্লেখ করে মার্কিনিদের সফরে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এই পদক্ষেপ নিয়েছে।

us bangladesh flagবাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের পতাকা

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বলা হয়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় মার্কিন নাগরিকদের বিদেশ ভ্রমণের ওপর সতর্কতা জারি করেছে সিডিসি।

এ ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের মাত্রার ওপর ভিত্তি করে বিশ্বের দেশগুলোকে ৪টি শ্রেণিভুক্ত করা হয়েছে। সেগুলো হলো- স্বল্প, মধ্যম, উচ্চ ও অত্যধিক উচ্চ মাত্রা।

এর মধ্যে ‘অত্যধিক উচ্চ’ সংক্রমণের দেশগুলোর তালিকায় রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। এ ছাড়া ‘উচ্চ’ মাত্রায় ভারত ও শ্রীলঙ্কা, ‘মধ্যম’ মাত্রায় নেপাল এবং ‘স্বল্প’ মাত্রায় রয়েছে ভুটান।

মার্কিন নাগরিকদের বাংলাদেশে সব ধরনের ভ্রমণ বাতিল করার পরামর্শ দিয়েছে সিডিসি। এদেশ সফর করলে দুই ডোজ টিকা নেয়া ব্যক্তিরাও করোনা আক্রান্ত হতে পারেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

us cdcযুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)

বাংলাদেশ সফরের আবশ্যকতা থাকলে তার আগে টিকার সম্পূর্ণ ডোজ নিতে হবে। এ ছাড়া মাস্ক পরা, সব ধরনের সমাবেশ ও জনসমাগম এড়িয়ে চলা এবং ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এদিকে, বাংলাদেশ, পাকিস্তান, কেনিয়া ও ফিলিপাইনকে করোনার ‘রেড লিস্টে বা লাল তালিকা’ যুক্ত করেছে যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট ফর ট্রান্সপোর্ট। আগামীকাল শুক্রবার এসব দেশ থেকে দেশটিতে ভ্রমণের ওপর এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবার কথা।

বলা হচ্ছে, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্ট মোকাবেলায় রেড লিস্ট তৈরি করেছিল যুক্তরাজ্য। এই তালিকায় যুক্ত হওয়া নতুন ৪ দেশ নিয়ে মোট দেশের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯।