advertisement
আপনি দেখছেন

দেশে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আরোপিত চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আরেক দফা বাড়ানো হয়েছে। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিধিনিষেধ চলবে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে আজ রোববার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

locdown in dhakaঢাকা লকডাউনের দৃশ্য, সাম্প্রতিক ছবি

এতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯-জনিত রোগ সংক্রমণের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে আগের সব বিধিনিষেধ ও কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় নিম্নোক্ত শর্তাবলী সংযুক্ত করে এ বিধিনিষেধ বাড়ানো হয়েছে। যা ৬ জুন (আজ) মধ্যরাত হতে ১৬ জুন ২০২১ তারিখ মধ্যরাত পর্যন্ত বর্ধিত করা হলো।

উল্লেখ্য, দেশে দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে গেলে গত ৫ থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত প্রথমে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। কিন্তু তাতে মানুষের উদাসীনতা ও পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর তথা সর্বাত্মক লকডাউন বা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। এর পর কয়েক দফা বাড়িয়ে তা সর্বশেষ ৬ জুন (আজ) পর্যন্ত করা হয়। কিন্তু অবস্থার আশানুরূপ উন্নতি না হওয়ায় বিধিনিষেধের মেয়াদ আবারো বাড়ানো হলো।

chapinababgonj locdownসংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে জেলায় জেলায় বিশেষ লকডাউন আরোপ করা হচ্ছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জে লকডাউনের ছবি

প্রজ্ঞাপনে বর্ধিত মেয়াদে যেসব বিধিনিষেধ ও শর্তাবলী সংযুক্ত করা হয়েছে সেগুলো হলো-

# সব ধরনের পর্যটনস্থান, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

# জনসমাগম হয় এ ধরনের যেকোনো সামাজিক যেমন- বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান- ওয়ালিমা, জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি এবং রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ রাখতে হবে।

# সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁসমূহ খাদ্য বিক্রয় বা সরবরাহ (টেকঅ্যাওয়ে বা অনলাইন) করতে পারবে এবং আসন সংখ্যার অর্ধেক সেবাগ্রহীতাকে সেবা দিতে পারবে।

# যেসব জেলা কোভিড-১৯ এর উচ্চঝুঁকি সম্পন্ন সেসব জেলার জেলা প্রশাসকরা সংশ্লিষ্ট কারিগরি কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে নিজ নিজ এলাকার সংক্রমণ প্রতিরোধে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

# আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আন্তঃজেলাসহ সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল করতে পারবে। তবে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি অবশ্যই যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে মানতে হবে।