advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশ শিগগিরই করোনার টিকার যৌথ উৎপাদনের ঘোষণা দিতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। আজ বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।

corona ticka 2করোনার টিকা, ফাইল ছবি

দেশে যৌথভাবে টিকা উৎপাদন নিয়ে আলোচনা চলছে জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে শিগগিরই ঘোষণা আসছে। তবে কবে নাগাদ এ সংক্রান্ত ঘোষণা দেয়া হবে, তা জানাননি তিনি।

দেশীয় কোন ওষুধ কোম্পানি টিকা তৈরি করবে, তা সংশ্লিষ্টরা ঠিক করবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সক্ষমতা থাকা কোম্পানিগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে টিকা উৎপাদন করতে পারে।

abdul momen foreign minister bd 1এ কে আব্দুল মোমেন, ফাইল ছবি

টিকা উৎপাদনে সফলতা এলে নিজেদের চাহিদা পূরণ করে রপ্তানি করা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন আব্দুল মোমেন। সেইসঙ্গে টিকাদান কর্মসূচি অব্যাহত রাখতে অনেক দেশের কাছে টিকা চাওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সেসব দেশ টিকা দেবে বললেও কবে দেবে, তা বলছে না বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। চীনের কাছ থেকে কেনার পথে থাকা টিকা কবে নাগাদ দেশে আসবে, তাও জানাতে পারেননি তিনি।

sinopharm vaccineসিনোফার্মের টিকা, ফাইল ছবি

এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আব্দুল মোমেন বলেন, দেশটি থেকে কী পরিমাণ টিকা কেনা হবে এবং তা কবে দেশে আসবে, এটা বলতে পারবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তবে উপহারের ৬ লাখ ডোজ টিকা দেশে আসছে আগামী ১৩ জুন।

যুক্তরাষ্ট্রের কাছে চাওয়া অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার টিকার বিষয়ে তিনি বলেন, ১.৫ মিলিয়ন টিকা চেয়েছি। তারা প্রথমে সম্মত না হলেও পরে দিতে রাজি হয়েছে। তবে তা কবে দেবে, সেটা নিশ্চিত করেনি ওয়াশিংটন।

oxford corona tickaঅক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা, ফাইল ছবি

এর আগে করোনা মোকাবেলায় ফিলিস্তিনকে ১৪০০ কেজি জরুরি ওষুধ সামগ্রী দিয়েছে বাংলাদেশ, যার বাজার মূল্য প্রায় ৪০ লাখ টাকা। ঢাকায় নিযুক্ত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত ইউসুফ এস ওয়াই রামাদানের হাতে বাংলাদেশ ওষুধ শিল্প সমিতির এসব ওষুধ সামগ্রী হস্তান্তর করা হয়।