advertisement
আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি বা বিআরটিএ ব্লুটুথ প্রযুক্তি সংবলিত কোনো মোটরসাইকেলের নিবন্ধন দেবে না যদি না বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন বা বিটিআরসি সেটার অনুমতি দেয়। সম্প্রতি এক চিঠিতে বিআরটিএ সংশ্লিষ্টদের বিষয়টি জানিয়েছে। অর্থাৎ ব্লুটুথসহ বেতারতরঙ্গ সেবাযুক্ত কোনো মোটরসাইকেল বাজারজাত করতে হলে আগে বিটিআরসির অনুমতি নিতে হবে।

motocycle with bluetoothব্লুটুথযুক্ত মোটরসাইকেল, ফাইল ছবি

জানা যায়, বিআরটিএ সম্প্রতি দেশের সব মোটরসাইকেল উৎপাদন ও বিপণনকারী কোম্পানিকে একটি চিঠি পাঠিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে। ২০০১ সালের টেলিযোগাযোগ আইন অনুযায়ী, বিটিআরসি কর্তৃক বরাদ্দ করা তরঙ্গ ছাড়া কোনো বেতার যন্ত্রপাতি স্থাপন, পরিচালনা কিংবা ব্যবহার করা যাবে না।

সংশ্লিষ্টদের পাঠানো ওই চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন বিআরটিএর প্রকৌশল পরিচালক শীতাংশু শেখর বিশ্বাস। এতে বলা হয়, সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে মোটরসাইকেলে ব্লুটুথ তরঙ্গভিত্তিক অ্যাপ ও ডিভাইস সংযোগের ক্ষেত্রে বিটিআরসি থেকে অনুমতি নিতে হবে।

btrc logo newবিটিআরসি লোগো

চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, ব্লুটুথ, ইন্টারনেট অব থিংকস, ভেহিকেল ট্রাকিং সিস্টেম কিংবা অন্য কোনো ওয়্যারলেস ডিভাইস মোটরসাইকেলে সংযোজনের ক্ষেত্রে আমদানিকারকরা যদি বিটিআরসি থেকে অনুমোদন না নেয়, সেক্ষেত্রে বিআরটিএ থেকে মোটরসাইকেলের নিবন্ধন পাবে না তারা।