advertisement
আপনি পড়ছেন

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। যে অ্যাডভান্স স্টেজের চিকিৎসা দরকার, সেটা দেশে এখনো গড়ে উঠেনি। তাই দেশের বাইরে নিয়ে গেলে খুব ভালো হবে। সম্রাটের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশ অনুযায়ী এসব কথা জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ)।

ismail hossain somrat jubo leagueইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট

দিনকয়েক আগে সম্রাটকে জামিন দিয়েছেন আদালত। তবে শারীরিকভাবে অসুস্থ হওয়ায় এখনো তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসাধীন। তার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড নিয়মিত বিরতিতে শারীরিক অবস্থা জানিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ সোমবার (১৬) গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নজরুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, সম্রাট সুস্থ নন। কিছু ওষুধ পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে। এ অবস্থায় আরও ৩-৪ দিন তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। এরপর ছাড়পত্র দেওয়া হতে পারে। তবে স্থায়ী আরোগ্যের জন্য তার উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। পরিবার চাইলে দেশে তার চিকিৎসা করাতে পারে। তবে মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশ হলো- তাকে বিদেশে নিয়ে যাওয়া উচিৎ।

সম্রাটের বিরুদ্ধে মোট চারটি মামলা ছিল। এর আগে অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচারের মামলায় তিনি জামিন পেয়েছেন। সবশেষ গত ১১ মে জামিন পেলেন দুদকের দায়ের করা মামলায়। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে ক্যাসিনো বিরোধী অভিযান শুরুর পরেই র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন যুবলীগ নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। এক পর্যায়ে দলীয় পদ থেকে তাকে পদত্যাগ করতে বাধ্য করা হয়।