advertisement
আপনি পড়ছেন

চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক সেবনের ঝুঁকি নিয়ে বরাবরই সতর্ক করে আসছেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু তারপরও এই প্রবণতা কমেনি। অসুস্থ হয়ে ফার্মেসিতে গিয়ে ওষুধ চাইলে অনেক বিক্রেতাই প্রয়োজন না থাকলেও অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে দেন। এই প্রবণতা রুখতে এবার অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়কে সতর্কতামূলক লাল চিহ্ন রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

antibiotic redঅ্যান্টিবায়োটিকের মোড়কে থাকবে সতর্কতামূলক লাল চিহ্ন

আজ বুধবার (১৮ মে) রাজধানীতে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এস এম সাবরিনা ইয়াছমিন। অবশ্য কয়েক মাস আগেই অ্যান্টিবায়োটিকের ব্যবহার সংক্রান্ত একটি যৌথ সভায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ফার্মাসিটিউক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ এবং ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

সাবরিনা ইয়াছমিন বলেন, দেশের ৬৭ শতাংশ ফার্মেসির বিক্রেতারা অ্যান্টিবায়োটিকের সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে জানেন না। এমনকি তাদের অনেকে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ ভালোভাবে চেনেনও না। তাই এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়কে লাল চিহ্ন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে করে রোগীরাও সতর্ক হতে পারবেন।