advertisement
আপনি পড়ছেন

নিয়ন শেখ। বয়স সবে ২২। নরসিংদী জেলার পলাশ থানার মধ্যপাড়ায় বসবাস করেন। তারা দুই ভাই, এক বোন। সে সবার ছোট। বাবা-মা তাদের সম্পত্তি ভাইবোনের মধ্যে বণ্টন করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু এতেই নাখোশ হয় নিয়ন। সম্পত্তির বণ্টনকে কেন্দ্র করে মা-বোনকে মারপিটের পর মামাকে হত্যা করেন তিনি।

nion shekhগ্রেপ্তার নিয়ন শেখ

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ এপ্রিল রাতে নিয়ন শেখ তার মাকে বাড়িতে একা পেয়ে তার সাথে মারমুখী আচরণ করেন। বিষয়টি তার মামা বাড়ির লোকজন জানতে পেয়ে নিয়ন শেখের মা শেফালী বেগম ও তার বোন বিথী আক্তারকে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়।

পরদিন ১৮ এপ্রিল বিকেলে বিথী আক্তার তার বাবার বাড়ি থেকে তার মালিকানাধীন গরুটি মামার বাড়ি নিয়ে আসে। নিয়ন শেখ এটা জানতে পেরে মামার বাড়ি এসে মা ও বোনকে মারপিট করে গরু নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। ঠিক তখনই ঘরে থাকা তার মামা আতাউর বাইরে এসে প্রতিবাদ করলে ধারালো ছুরি দিয়ে মামার বুকে আঘাত করে নিয়ন শেখ।

narsingdi map newমানচিত্রে নরসিংদী

আতাউরকে গুরুতর রক্তাক্ত অবস্থায় প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। এরপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শারীরিক অবস্থার আরো বেশি অবনতি হলে ২৪ এপ্রিল রামপুরার এডভান্স হসপিটালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। ওই দিন রাতেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

ঘটনার পর নিহত আতাউরের স্ত্রী মোসা. দিলরুবা আক্তার বাদী হয়ে নিয়ন শেখের বিরুদ্ধে নরসিংদী জেলার পলাশ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর বলেন, সিআইডির এলআইসি শাখা ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে। ঘটনাস্থল ও আশপাশের বিভিন্ন উৎস থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করে। 

এক পর্যায়ে এলআইসির একটি চৌকস টিম অভিযান পরিচালনা করে গতকাল ১৭ মে রাতে গাজীপুর জেলার কালিগঞ্জ থানার বাগবাড়ী এলাকা থেকে আসামি নিয়ন শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়।