advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বাংলাদেশসহ ১৩টি দেশের নাগরিকদের জন্য যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ইতালি সরকার, তা আবারো বাড়ানো হয়েছে। পরিবর্তিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে দেশটির সরকার এ সংক্রান্ত নোটিশ টু এয়ারমেন শীর্ষক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

bangladeshi in italy extendedবাংলাদেশিদের জন্য ইতালিতে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়লো

এতে বলা হয়, বাংলাদেশসহ ১৩টি দেশে ১৪ দিন অবস্থান করেছে- এমন কেউ ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ইটালিতে প্রবেশ করতে পারবে না। এর আগে গত ১৪ জুলাই ইতালি সরকার প্রথম নিষেধাজ্ঞা জারি করে, যা মেয়াদ গতকাল ৩১ জুলাই পর্যন্ত ছিল।

নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা অন্যদেশগুলো হলো- ব্রাজিল, বসনিয়া হার্জেগোভিনা, আর্মেনিয়া, বাহরাইন, উত্তর ম্যাসিডোনিয়া, মলডোভা, চিলি, কুয়েত, পানামা, পেরু, ডমিনিকান রিপাবলিক এবং ওমান।

italy disinfections continuingকরোনা ঠেকাতে ইতালিতে চলছে জীবাণুমুক্তকরণ

প্রসঙ্গত, ইটালিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপক হারে দেখা দিলে দেশটিতে থাকা অনেক বাংলাদেশি দেশে ফিরে আসেন। পরে পরিস্থিতি প্রায় স্বাভাবিক হলে রোম তাদের যাওয়ার অনুমতি দেয়। এ অবস্থায় গত ১২ জুন থেকে ৬ জুলাই পর্যন্ত ছয়টি ফ্লাইটে প্রায় ১ হাজার ৬০০ বাংলাদেশি দেশটিতে যায়। প্রথম ফ্লাইটেই কোভিড-১৯ আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া যায়। কিন্তু তার পরও বাংলাদেশিদের যাওয়ার অনুমতি দেয় দেশটির সরকার।

কিন্তু পরবর্তী পাচঁটি ফ্লাইটে যেসব বাংলাদেশি দেশটিতে যান, তাদের মধ্যে সন্দেহভাজনদের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়। পরে তাদের মধ্যেই অনেকেই আক্রান্ত হিসেবে চিহ্নিত হয়। এর পর আরো ফ্লাইটে যাওয়া বাংলাদেশিদের মধ্যে বিমানবন্দরেই অনেকের করোনা শনাক্ত হয় বলে দাবি করা হয়। পরে যাত্রীদের ওই ফ্লাইটেই ফেরত পাঠানো হয়। এ নিয়ে ইতালির প্রভাবশালী পত্রিকাগুলোয় ব্যাপক নেতিবাচক খবর প্রচারের প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় রোম।

sheikh mujib 2020