advertisement
আপনি দেখছেন

নভেল করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) মহামারির মধ্যে গত ৫ মাসে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৭৮ হাজার প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক দেশে ফিরে এসেছে বলে জানিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়। আজ রোববার মন্ত্রণালয়ের তৈরি করা এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নির্ধারিত প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের বিশেষজ্ঞরা।

worker returnকরোনার ৫ মাসে দেশে ফিরেছেন ৭৮ হাজার শ্রমিক- ফাইল ছবি

মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ১ এপ্রিল থেকে ২২ আগস্ট পর্যন্ত প্রায় ৫ মাসে বিশ্বের ২৬টি দেশ থেকে মোট ৭৮ হাজার ৪৩ জন প্রবাসী শ্রমিক দেশের ফিরে এসছেন। এর মধ্যে নারী শ্রমিক রয়েছেন ৪ হাজার ৭৩২ জন।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, এসব শ্রমিকের একটি বড় অংশই করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে তাদের কাজ হারিয়ে দেশে ফিরে এসেছেন। তবে অনেকই আবার তাদের চাকরির নির্ধারিত মেয়াদ শেষে দেশে ফিরেছেন। অনেকে এসেছেন ছুটিতে।

জানা যায়, গত ৫ মাসে সবচেয়ে বেশি প্রবাসী শ্রমিক ফিরে এসছেন সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে। দেশটি থেকে মোট ২৫ হাজার ৬৫৩ জন প্রবাসী ফিরে এসছেন। এর পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে সৌদি আরব। দেশটি থেকে ফিরেছেন ১৫ হাজার ৩৮৯ জন শ্রমিক। এ ছাড়া ওমান, বাহরাইন, কুয়েত, কাতার, লেবানন, জর্ডান, মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর থেকেও বিপুল পরিমাণ শ্রমিক ফিরে এসছেন।

misintry of expatriate wealfareপ্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিষ্ঠানগুলো কর্মী ছাঁটাইয়ের কারণে দেশটি থেকে এত বিপুল পরিমাণ শ্রমিক তাদের চাকরি হারিয়ে দেশে ফিরেছে।

ফিরে আসা শ্রমিকদের বরাত দিয়ে মন্ত্রণালয় আরো জানায়, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিযোগকর্তারা শ্রমিকদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তাদের আবার কাজে ফিরিয়ে নেওয়া হবে। অনেকের আবার চাকরির মেয়াদ শেষ হওয়ায় দেশে ফিরে এসেছেন। কিছু এসেছেন ছুটিতে।