advertisement
আপনি দেখছেন

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় আহত আরো এক বাংলাদেশি মারা গেছেন। আজ মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় মাউন্ট লেবানন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এ নিয়ে দেশটিতে রাসায়নিক বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃত বাংলাদেশির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৬ জনে।

md jamalমো. জামাল। ছবি- সংগৃহীত

মারা যাওয়া বাংলাদেশি হলেন মো. জামাল। তিনি বিস্ফোরণে আহত হওয়ার পর থেকে গত ২১ দিন মাউন্ট লেবানন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার বিদ্যাকুট গ্রামের দুধ মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, গত ২০১৮ সালে শ্রমিক ভিসায় লেবাননে পাড়ি জমান জামাল। তিনি বৈরুত বন্দরের কাছে ঝিমাইজি এলাকায় একটি পিৎজার দোকানে কাজ করতেন। বিস্ফোরণের দিনও তিনি কাজ করছিলেন। দোকানটি ঘটনাস্থলের খুব কাছে হওয়ায় বিস্ফোরণে তিনি মারাত্মকভাবে আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে মাউন্ট লেবানন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই আজ চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বর্তমানে তার মরদেহ হাসপাতালে হিমঘরে রাখা হয়েছে।

beirut explosion 7বিস্ফোরণের পর বৈরুত- ফাইল ছবি

গত ৪ আগস্ট সন্ধ্যায় লেবাননের রাজধানী বৈরুতে একটি রাসায়নিক গুদাম থেকে ভয়াবহ জোড়া বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশিসহ অন্তত ১৮১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত হয়েছেন ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ। এ ঘটনায় মোট ক্ষতি হয়েছে ৩০০ কোটি মার্কিন ডলার। এছাড়া সার্বিকভাবে দেশটির অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ১ হাজার ৫০০ কোটি ডলার। এ ঘটনার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রীও পদত্যাগ করেছেন।

sheikh mujib 2020