advertisement
আপনি দেখছেন

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ফুুলের সন্ধান পাওয়ার দাবি করেছে ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম সুমাত্রার প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ অধিদপ্তর। সম্প্রতি সেখানকার একটি জঙ্গলে র‍্যাফেলশিয়া নামের পরজীবী উদ্ভিদে ফোটা এই ফুলটির সন্ধান পাওয়া যায়। খবর সিএনএন।

rafltiea flower

জানা যায়, সন্ধান পাওয়া ওই ফুলটির ব্যাস প্রায় চার মিটার। পরজীবী শ্রেণির এই উদ্ভিদের কোন পাতা বা শেকড় নেই। এরা অন্য গাছের ওপর জন্ম নেয় এবং সেই গাছের ওপর নির্ভর করেই বেঁচে থাকে। আশ্রয়দাতা গাছের পুষ্টি ও পানি শোষন করে এক পর্যায়ে সেই গাছের উপরিতল ভেদ করেই ফুল ফোটায় র‍্যাফেলশিয়া উদ্ভিদ। তখনই এই পরজীবী উদ্ভিদটিকে খালি চোখে দেখা যায়।

এই ফুলের খোলা মুখ দিয়ে পঁচা মাংসের মতো কড়া দুর্গন্ধ বের হয়। তাই এই ফুলটিকে অনেকেই ‘কর্পস ফ্লাওয়া’ বা ‘লাশ ফুল’ বলে থাকেন। এছাড়া বড় আকার ও পরজীবী বৈশিষ্ট্যের জন্য এটিকে ‘দানব ফুল’ বা ‘মনস্টার ফ্লাওয়ার’ও বলা হয়ে থাকে।

তবে অদ্ভুত বিষয় হলো, বিশাল আকারের এই ফুলটি ফোটার সাতদিনের মাথায় পঁচে যায়। এছাড়া ফুলের খোলা মুখ দিয়ে দুর্গন্ধ বের হওয়ায় বেশিরভাগ কীট-পতঙ্গরা এর পরাগায়ন করতে আসে না।

প্রসঙ্গত, এর আগে ২০১৭ সালে এই একই জঙ্গলে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ফুলটি পাওয়া যায়। সেই ফুলের তুলনায় বর্তমানের নতুন ফুলটি চার ইঞ্চি চওড়া।