advertisement
আপনি দেখছেন

প্রায় ১৫ বছর আগে বাবা-মায়ের সঙ্গে ঢাকায় পাড়ি জমান মাদারীপুরের মেয়ে সেরেলা আক্তার হেনা। দীর্ঘ বছর সেখানে বসবাসের পর সম্প্রতি বাড়ি ফেরেন তিনি। কিন্তু একা নয়, সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী ও সন্তান। শুনতে অবাক লাগলেও রাজধানীতে বসবাস করার সময় হরমনজনিত কারণে মেয়ে থেকে ছেলে হয়ে যান তিনি। তারপর নিজের নাম পাল্টে রাখেন সেলিম রেজা।

selim reja being boy from girl

পরিবার সূত্রে জানা যায়, শিবচর উপজেলার নিলখী ইউনিয়নের চর কামারকান্দি গ্রামের সেকান্দার খানের মেয়ে সেরেলা যখন ঢাকায় পাড়ি জমান তখন তার বয়স ছিল ১৫ বছর। প্রায় আট বছর আগে নিজের মধ্যে শারীরিক পরিবর্তন দেখতে দেখতে পান তিনি। তারপর এক সময় মেয়ে থেকে পুরোপুরি পুরুষ হয়ে যান সেলিম রেজা। প্রায় পাঁচ বছর আগে এক তরুণীকে বিয়েও করেন তিনি। বর্তমানে তার বয়স ৩০ বছর। ছোট একটি ছেলেও রয়েছে তার।

সেলিম রেজা জানান, ঢাকায় তিনি পল্লী চিকিৎসকের কোর্স সম্পন্ন করেছেন। আট বছর আগে নিজের মধ্যে পুরুষালী পরিবর্তন দেখতে পেলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন তিনি। তখন চিকিৎসক তাকে জানান, হরমোনজনিত কারণে তার এই শারীরিক পরিবর্তন হচ্ছে। এরপর ওষুধ খাওয়া শুরু করলে পুরোপুরি পুরুষে রূপান্তরিত হন তিনি। কিন্তু এ জন্য তিনি কোনো অস্ত্রোপচার করেননি।

selim reja being boy from girl 2

এদিকে, সেলিম রেজার আসার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। তাকে এক নজর দেখতে প্রতিদিনই তার বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে উৎসুক জনতা।

সেলিম রেজাকে দেখতে আসা পাশের গ্রামের আতাউর রহমান বলেন, তার শুধু কণ্ঠটিই মেয়েদের মতো, বাকি চলাফেরা সব ছেলেদের মতো। তার আবার স্ত্রী-সন্তানও আছে। এটি সত্যিই অবাক করার মতো ঘটনা। অনেক মানুষ দূর-দূরান্ত থেকে তাকে দেখতে আসছে।

sheikh mujib 2020