advertisement
আপনি দেখছেন

আগুনের চারপাশে সাতপাক ঘুরে মালা বদল করে বিয়ে হয় হিন্দু রীতিতে। কিন্তু নভেল করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে এক নবদম্পতি মালার পরিবর্তে পরস্পরকে পরিয়েছেন মাস্ক। সম্প্রতি এমনি ব্যতিক্রমী একটি বিয়ে হয়েছে ভারতের রাজস্থান রাজ্যের যোধপুরে।

bride groom wore masksবিয়েতে ফুুলের মালার পরিবর্তে পরস্পরকে মাস্ক পরালেন বর-কনে

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, করোনাভাইরাসের কারণে পাল্টে গেছে মানুষের জীবন-যাপন, চলাফেরা। পরিবর্তন এসেছে বিয়ের রীতিতেও। গত সোমবার যোধপুরে সামাজিক দূরত্ব মেনে এমন একটি বিয়ে হয়েছে, যেখানে বর কনে পরস্পরকে ফুলের মালার পরিবর্তে পরিয়েছেন মাস্ক। এই সংকটময় পরিস্থিতিতে সুরক্ষিত থাকতেই এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছেন ওই নবদম্পতি।

জানা যায়, শুধু মালার পরিবর্তে মাস্ক পরানোই নয়, বর-কনের পোশাকে যে বন্ধন দেওয়া হয়, সেখানেও ছিল সতর্কতা। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বরের পাঞ্জাবির সঙ্গে একটু বেশি দৈর্ঘ্য বজায় রেখে পাত্রীর লেহেঙ্গার জোড় বাঁধা হয়। এমনকি বিয়েতে বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথিরা সকলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুখে মাস্ক পরে এসেছিলেন। অতিথিদের জন্য বিয়ের অনুষ্ঠানে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থাও করা হয়েছিলো।

এমন ব্যতিক্রমী বিয়ের বিষয়ে কনে নীতু বলেন, করোনাভাইরাসের এই সংকটকালে সুরক্ষিত থাকতে প্রত্যেকের অবশ্যই মাস্ক পরা উচিত। তাই তারাও মালার পরিবর্তে মাস্ক পরার সিদ্ধান্ত নেন। বজায় রাখা হয় সামাজিক দূরত্ব।