advertisement
আপনি দেখছেন

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আরো একটি ইতিহাস সৃষ্টি হতে যাচ্ছে। প্রথমবারের মতো ট্রান্সজেন্ডার বা তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) এক ব্যক্তিকে সংবাদ পাঠক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন।

tasnuva annan shishir transgenderতাসনুভা আনান শিশির

জানা গেছে, তৃতীয় লিঙ্গের ওই মানুষটির নাম তাসনুভা আনান শিশির। তিনি বৈশাখী টেলিভিশনে সংবাদ পাঠক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দিন থেকে তাকে এ পেশায় দেখা যাবে।

বৈশাখী টিভি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্বাধীনতার মূলমন্ত্র ছিল দেশের মানুষের মুক্তি, সবার জন্য বাসযোগ্য, বৈষম্যহীন একটি সমাজ প্রতিষ্ঠা করা। কিন্তু গত ৫০ বছরে গর্ব করার মতো অনেক অর্জন থাকলেও বৈষম্যহীন ও সবার জন্য নিরাপদ জীবন নিশ্চিত করা যায়নি। বিশেষ করে ট্রান্সজেন্ডাররা অবহেলিত জনগোষ্ঠী হিসেবে রয়ে গেছে।

জন্মগতভাবে শারীরিক সীমাবদ্ধতা নিয়ে তারা আমাদের সমাজে ভূমিষ্ঠ হন। কিন্তু পারিবারিক, সামাজিক এমনকি রাষ্ট্রীয়ভাবে তারা বঞ্চনা ও অবহেলার স্বীকার হয়ে আসছেন। তবে এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার তৃতীয় লিঙ্গের এই মানুষদের মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় উদ্যোগ নিয়েছেন। ভোটার তালিকায় হিজড়া পরিচয়ে নিজেদের নাম নিবন্ধন করতে পারছেন তারা। সরকারি ভাতাও পাচ্ছে।

boishakhi tv logoবৈশাখী টেলিভিশন

এ বিষয়ে চ্যানেলটির জনসংযোগ কর্মকর্তা দুলাল খান বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই বছর আসন্ন নারী দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে বৈশাখী টেলিভিশনে সংবাদ এবং নাটকে দুইজন ট্রান্সজেন্ডারকে যুক্ত করা হয়েছে। দেশের মানুষ এই প্রথম পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে খবর পাঠ করতে দেখবেন একজন ট্রান্সজেন্ডারকে। যা স্বাধীনতার ৫০ বছরে কেউ কখনো দেখেনি।

আসছে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে তিনি প্রথম সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপন করবেন। একইদিনে নুসরাত মৌ নামের আরো একজন ট্রান্সজেন্ডার ধারাবাহিক নাটক ‘চাপাবাজ’-এর একটি পর্বে অভিনয় করবেন। ওইদিন রাত ৯টা ২০ মিনিটে নাটকটি সম্প্রচারিত হবে, যোগ করেন তিনি।