আপনি পড়ছেন

সোশ্যাল মিডিয়ায় কত জনই তো ভাইরাল হয়। কেউ নিজের ভিন্নরকম চেহারাসুরত দিয়ে, কেউ কৌতুক করে লোক হাসিয়ে। তবে পাকিস্তানের করাচিতে এবার ভাইরাল হয়েছে একটি ছাগলছানা। মাত্র এক মাস বয়সী ছাগলটির দুই কান এরইমধ্যে ২২ ইঞ্চি করে লম্বা হয়েছে। দিনে দিনে কানের দৈর্ঘ্য আরও বাড়ছে।

goat with 22 inch long ears২২ ইঞ্চি লম্বা কানের ছাগলছানা

ছাগলটির মালিক করাচির মোহাম্মদ হাসান নারিজো। করাচি বিমানবন্দরে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার হিসেবে চাকরি করা হাসান নারিজো ছাগলটির নাম রেখেছেন শিম্বা।

হাসান জানান, গত ৪ জুন ছাগলের বাচ্চাটির জন্ম হয়েছে। জন্মের সময় কানের দৈর্ঘ্য ছিল ১৯ ইঞ্চি করে (৪৮ সেন্টিমিটার)। শনিবার একমাস পাঁচদিন বয়সে ছাগলটির কানের দৈর্ঘ্য বেড়ে হয়েছে ৫৪ সেন্টিমিটার (২২ ইঞ্চি করে)।

যখন ছাগলটি ছুটোছুটি করে, তখন তার লম্বা কান দুটি দুলতে থাকে। কখনও তা মাটিতে গড়াগড়ি খায়। লম্বা কানের এই ছাগলের বাচ্চার ভিডিও হাজারো মানুষের নজর কেড়েছে ইউটিউবে।

ইউটিউবে ভিডিও দেখার পর শত শত মানুষ প্রতিদিন ভিড় করছেন হাসান নারিজোর বাড়িতে। ছাগলের কানের কল্যাণে রীতিমতো তারকা বনে গেছেন হাসান নিজেই। অনেকে ছবি তুলে, ভিডিও করে নিয়ে যাচ্ছেন ছাগল ছানাটির।

হাসানের আশা, শিম্বার নাম উঠবে গিনেজ রেকর্ড বুকে। কেবল গিনেজ রেকর্ডেই নাম নয়, তার শিম্বাকে দিয়ে ছাগল প্রজননে বিশ্বে পাকিস্তানের নাম উজ্জ্বল হবে বলেও প্রত্যাশা।

এজন্য কৃত্রিম প্রজনন ঘটাতে শিম্বার ‘সিমেন’ সংরক্ষণের পরিকল্পনা নিয়েছেন হাসান।

এতো লম্বা কান ছাগলটির নিজের বিপদেরও কারণ হতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। কারণ, এতো লম্বা কান কোনো ভাবে কেটে বা ভেঙে যেতে পারে। সেজন্য অতি সাবধানতার সঙ্গে চলছেন হাসান।

আরেকটি শঙ্কা দেখা দিয়েছে হাসান নারিজোর মনে। সেটি হচ্ছে, প্রতিদ্বন্দ্বী ছাগলখামারিদের কুনজর যদি লেগে যায় শিম্বার গায়ে। সেজন্য প্রতিদিন দোয়া পড়ে ছাগলটির গায়ে ফুঁ দিয়ে দিন শুরু করছেন হাসান।

সূত্র: বিবিসি ও রয়টার্স