advertisement
আপনি পড়ছেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে বেইজিংয়ে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে চীন। দেশটি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রকে এই ভুলের জন্য চরম মূল্য দিতে হবে। খবর আনাদোলু।

china us relation 3মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে চীন

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় স্থানীয় সময় বুধবার ভোরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকোলাস বার্নসের কাছে তাইওয়ানে পেলোসির অঘোষিত সফরের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে। চীনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী জি ফেং বার্নসকে বলেছেন, পেলোসির সফরের প্রকৃতি অত্যন্ত জঘন্য এবং এর পরিণতি গুরুতর। এই ভুলের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে চরম মূল্য দিতে হবে। চীন অবশ্যই এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ও দৃঢ় পাল্টা ব্যবস্থা নেবে।

পেলোসির সফরকে ‘অন্যায় পদক্ষেপ’ বলে অভিহিত করে জি ফেং বার্নসকে বলেন, সফরটি একটি গুরুতর উস্কানি ও আন্তর্জাতিক নীতির লঙ্ঘন। যুক্তরাষ্ট্রের উচিত ছিল তাকে ঐতিহাসিক ধারার বিরুদ্ধে যাওয়া থেকে বিরত রাখা। কিন্তু তারা এর পরিবর্তে তাকে প্ররোচিত করেছে, যা তাইওয়ান প্রণালীতে উত্তেজনা বাড়িয়ে তুলেছে এবং চীন-মার্কিন সম্পর্ককে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

nancy pelosi c landed in taiwanতাইওয়ান সফরে ন্যান্সি পেলোসি

চীনের নানা ধরনের হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও পেলোসি গতকাল মঙ্গলবার মালয়েশিয়া থেকে তাইওয়ানে উড়ে যান। রাত পৌনে ১১টায় তাইপেই সোংশান বিমানবন্দরে অবতরণ করলে তাইওয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ তাকে স্বাগত জানান তাকে।

২৫ বছরের মধ্যে তাইওয়ান সফরকারী মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের প্রথম স্পিকার পেলোসি। এর আগে ১৯৯৭ সালে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার হিসেবে তাইওয়ান সফরে এসেছিলেন রিপাবলিকান নিউট গিংরিচ।

পেলোসি তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং-ওয়েনের সাথে দেখা করবেন এবং দেশটির আইন প্রণেতাদের সাথেও বৈঠকে যোগ দেবেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্পিকারের তাইওয়ানে অবতরণের পরপরই চীনা সামরিক বাহিনী দেশটির চারপাশে সামরিক মহড়া করার ঘোষণা দেয়।

চীনা রাষ্ট্রীয় মিডিয়া প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা গেছে, পিপলস লিবারেশন আর্মি তাইওয়ান দ্বীপকে ঘিরে যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে। এই মহড়ায় জে-২০ স্টিলথ ফাইটার জেট ব্যবহার করছে চীন।