advertisement
আপনি পড়ছেন

তাইওয়ানে মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফরে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে চীন। এমনকি দেশটি তাইওয়ানের বিরুদ্ধে প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থার কথা ঘোষণা দিয়েছে। এর মধ্যে আমদানি-রপ্তানি স্থগিত ছাড়াও তাইওয়ানের চারপাশে সামরিক মহড়ার ঘোষণা এসেছে। তাছাড়া তাইওয়ানের দুটি বৃহত্তম ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে চীন। খবর টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

china taiwan invade inner 1চীন ও তাইওয়ানের মানচিত্র

পেলোসির সফরকে উসকানি বলে অভিহিত করেছে চীন। দেশটির কর্মকর্তারা মনে করেন, পেলোসির সফর তাওয়ানের ‘ক্রস-স্ট্রেট স্ট্যাটাস কো’ অবস্থানের লঙ্ঘন। এর অর্থ হলো ‘কোনো একত্রীকরণ, স্বাধীনতা কিংবা শক্তির ব্যবহার নয়’।

পেলোসির সফরের প্রতিবাদে চীন তাইওয়ানের চারপাশে লাইভ-ফায়ার সামরিক মহড়ার একটি সিরিজ ঘোষণা করেছে। চীনের পিপলস লিবারেশন আমির ইস্টার্ন থিয়েটার কমান্ড জানিয়েছে, তাইওয়ানের উত্তর, দক্ষিণ-পশ্চিম এবং দক্ষিণ-পূর্ব সমুদ্র এবং আকাশপথে যৌথ নৌ ও বিমান মহড়া পরিচালিত হবে।

nancy pelosi c landed in taiwanন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফর নিয়ে উত্তেজনা চরমে

এই মহড়ার মধ্যে রয়েছে তাইওয়ান প্রণালীতে ‘দূরপাল্লার লাইভ গোলাগুলি’। এই প্রণালীটি তাইওয়ানকে চীনের মূল ভূখণ্ড থেকে আলাদা করেছে। পিপলস লিবারেশন আর্মির তথ্য অনুসারে, মহড়ার সময় কিছু পয়েন্টে তাইওয়ানের উপকূলরেখার ২০ কিলোমিটারের মধ্যে চীনা সামরিক বাহিনীর উপস্থিতি থাকবে।

বেইজিং তাইওয়ানকে তার প্রদেশ হিসেবে বিবেচনা করে এবং প্রয়োজনে বলপ্রয়োগ করে এটি দখল করার হুমকিও দিয়েছে। তবে চীনের হুমকির বিরুদ্ধে তাইওয়ানের কর্মকর্তারা জনগণের শান্তি রক্ষায় দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তাইওয়ানের মন্ত্রিসভা জানিয়েছে, সামরিক বাহিনী সতর্কতার মাত্রা বাড়িয়েছে এবং কর্তৃপক্ষ দ্বীপের চারপাশে নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করার পরিকল্পনা করেছে।

এদিকে বেইজিংয়ের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রতিশোধমূলক অর্থনৈতিক ব্যবস্থাও ঘোষণা করেছে। ঘোষণায় বলা হয়েছে, চীন এখন থেকে তাইওয়ানে প্রাকৃতিক বালি রপ্তানি স্থগিত করবে। এই পণ্যটি সেমিকন্ডাক্টর তৈরির একটি মূল উপাদান, যা চীন থেকে আমদানি করে তাইওয়ান। এছাড়া চীন তাইওয়ান থেকে সাইট্রাস ফল, ঠাণ্ডা সাদা ডোরাকাটা চুলের টেল এবং হিমায়িত ঘোড়া ম্যাকেরেল (সামুদ্রিক মাছ) আমদানি স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে।

চীনের তাইওয়ানবিষয়ক অফিসের মুখপাত্র মা জিয়াওগুয়াং বলেছেন, চীন তাইওয়ান ফাউন্ডেশন ফর ডেমোক্রেসি এবং তাইওয়ান ইন্টারন্যাশনাল কোঅপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে। এছাড়া চীনা কোম্পানি এবং ব্যক্তিদের সাথে আর্থিকভাবে সহযোগিতা ও লেনদেন থেকে তাইওয়ানকে নিষিদ্ধ করা হবে।