advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার ১৬৫ দিন অতিবাহিত হচ্ছে আজ। এরই মধ্যে রাশিয়া ৪২ হাজার সেনা হারিয়েছে বলে দাবি করেছে কিয়েভ। এর পাশাপাশি প্রচুর পরিমাণ সামরিক সরঞ্জাম ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর হাতে ধ্বংস হয়েছে বলেও দাবি করেছে তারা। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

destroyed russian tanks in ukraineইউক্রেন বাহিনীর হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকটি রুশ ট্যাংক

ন্যাটোতে যুক্ত হওয়ার ইস্যুকে কেন্দ্র করে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। প্রথমে ধারণা করা হচ্ছিল, কয়েকদিনের মধ্যেই যুদ্ধ শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু যুদ্ধ এখন পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে। আজ সেটি ১৬৫তম দিনে গড়াল। এ অবস্থায় গতকাল ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে, যাতে ইউক্রেন বাহিনীর হাতে রুশ বাহিনীর ক্ষয়ক্ষতির বিবরণ দেওয়া হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, যুদ্ধে ইউক্রেন বাহিনীর প্রতিরোধের মুখে এ পর্যন্ত ৪২ হাজার ২০০ রুশ সেনা নিহত হয়েছেন। এছাড়া এ সময়ে রাশিয়া ২২৩টি যুদ্ধবিমান, এক হাজার ৮০৫টি ট্যাঙ্ক, ১৯১টি হেলিকপ্টার হারিয়েছে। একই সাথে রুশ বাহিনীর ৮৬টি বিশেষ যুদ্ধ সরঞ্জাম, ১৩২টি বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র সিস্টেম, দুই হাজার ৯৭৮টি বিভিন্ন ধরনের গাড়ি হারিয়েছে। রাশিয়া অবশ্য এ সম্পর্কে শুরু থেকেই কোনো প্রকার মন্তব্য করা থেকে বিরত থেকেছে।

destroyed ukraine 4রাশিয়ার হামলায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া ইউক্রেনের একটি শহর

ইউক্রেনের মতো রাশিয়া কোনো পরিসংখ্যান জানায়নি। বরং তারা একের পর এক ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরকে ধ্বংসস্তূপে পরিণত করেছে। যুদ্ধ থামলেও এসব শহর পুনর্গঠনে কোটি কোটি ডলার প্রয়োজন হবে বলে জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

তবে আশঙ্কার বিষয় হচ্ছে, এখন পর্যন্ত যুদ্ধ থেমে যাওয়ার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এই যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে নানা ধরনের সঙ্কট তৈরি হচ্ছে, যা ধীরে ধীরে আরও বাড়বে বলেই অনুমান করছেন বিশ্লেষকরা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর