advertisement
আপনি পড়ছেন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন খুব বেশি দিন হয়নি। নিউজিল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার রস টেলর অবশ্য ‘বিদায়’ বলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বেশ নাড়িয়ে যাচ্ছেন। সদ্যই প্রকাশিত হয়েছে টেলরের আত্মজীবনী ‘রস টেলর: ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট’। সেখানে রীতিমতো বোমা ফাটিয়েছেন তিনি।

ross taylor 2রস টেলর

একের পর এক নতুন ও সাড়া জাগানিয়া তথ্য আসছে তার আত্মজীবনী থেকে। একদিন আগেই জানা গিয়েছিল ড্রেসিংরুমে বর্ণবাদের শিকার হয়েছিলেন টেলর। এবার আইপিএল নিয়ে বিস্ফোরক এক অভিযোগ করেছেন তিনি। আত্মজীবনীতে লিখেছেন, আইপিএলের দল রাজস্থান রয়্যালসের এক মালিক তিন-চারবার চড় মেরেছিলেন তাকে!

টেলরের আত্মজীবনী ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করছে নিউজিল্যান্ডের সংবাদমাধ্যম স্টাফ ডট কো ডট এনজেড। ঘটনা ঘটেছিল ২০১১ সালের আইপিএলে। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরতে তিন মৌসুম (২০০৮-২০১০) কাটানোর পর এক বছরের জন্য রাজস্থানে এসেছিলেন টেলর। কিউই এই ব্যাটসম্যানকে ১ মিলিয়ন ডলারে নিলাম থেকে কিনেছিল রাজস্থান।

২০১১ সালে মোহালিতে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচে ১৯৬ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে রাজস্থান ১৪৭ রান করেছিল। মিডল অর্ডারে নেমে টেলর ৫ বল খেলে শুন্য রানে আউট হয়েছিলেন। ম্যাচের পর রাতে দলটির এক মালিক চড় মেরেছিলেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক এ অধিনায়ককে।

আত্মজীবনীতে টেলর লিখেছেন, ‘১৯৫ রান তাড়া করছিলাম। আমি এলবিডব্লিউ হয়ে যাই শূন্য রানে এবং আমরা কাছাকাছি যেতে পারিনি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘ম্যাচের পর পুরো দল, সাপোর্ট স্টাফ এবং টিম ম্যানেজমেন্ট হোটেলের টপ ফ্লোরের বারে ছিল। সেখানে লিজ হার্লিও ছিল শেন ওয়ার্নের সঙ্গে। রাজস্থানের এক মালিক আমাকে এসে বলে, রস, শূন্য রানের জন্য আমরা তোমাকে মিলিয়ন ডলার দেইনি। এবং তিন-চার বার আমার মুখে চড় মারেন।’

হঠাৎ এই কাণ্ডে ভড়কে গিয়েছিলেন টেলর, ‘সে হাসছিল এবং সেগুলো শক্ত চড় ছিল না। কিন্তু আমি নিশ্চিত নই, এটা পুরোটা অভিনয় ছিল কিনা। ওই পরিস্থিতিতে আমি এটাকে ইস্যু বানাতে চাইনি। কিন্তু আমি কল্পনাই করতে পারছিলাম না পেশাদার প্রতিযোগিতার পরিবেশে এমনটা হতে পারে।’

যদিও টেলরের এমন অভিযোগের জবাবে এখনও কোনো মন্তব্য করেনি রাজস্থান কর্তৃপক্ষ।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর