advertisement
আপনি পড়ছেন

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে দেশে সব ধরনের নিত্যপণ্যের দামই ঊর্ধ্বমুখী। এর মধ্যে ডিমের ঊর্ধ্বমূল্যটা একটু বাড়াবাড়ি পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। ফার্মের মুরগির প্রতিটি ডিম বিক্রি হচ্ছে ১৫-১৬ টাকা করে। ডজনে দাম উঠেছে ১৭০-১৮০ টাকা। এ অবস্থায় দামের লাগাম টানতে প্রয়োজনে ডিম আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

commerce minister tipu munshiবাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

আজ বুধবার (১৭ আগস্ট) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী। ডিমের দাম যে পরিমাণ বেড়েছে, তা অস্বাভাবিক- মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। ডিমের দাম না কমলে আমরা আমদানির সিদ্ধান্ত নেব।

মন্ত্রী বলেন, ডিমের দাম কমাতে হলে একটা প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যেতে হবে। কৃষি ও মৎস্যসহ সংশ্লিষ্ট আরও কয়েকটা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনায় বসতে হবে। এটা রাতারাতি সম্ভব না। তবে যদি ব্যবসায়ীদের কারসাজি ধরা পড়ে কিংবা কোনোভাবেই ডিমের দাম কমানো সম্ভব না হয়, তাহলে সবশেষ পথ হলো আমদানির দিকে যাওয়া।

এদিকে, ব্যবসায়ীরা বলছেন, আন্তর্জাতিক ও দেশের বাজারে মুরগির খাদ্যের উপকরণের দাম বৃদ্ধি, জ্বালানি তেল ও ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় ডিমের বাজারে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তবে দাম যতটা বাড়ার কথা, তার চেয়ে অনেক বেশি বেড়েছে বলে স্বীকার করছেন দোকানিরা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর