advertisement
আপনি পড়ছেন

সিরিয়ার সীমান্তে সেনা চৌকি ও কুর্দি বাহিনীকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে তুরস্ক। এতে সিরীয় সেনাসহ অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাতে এ হামলা চালানো হয়। তবে সিরিয়ায় যুদ্ধ পর্যবেক্ষণে থাকা ব্রিটিশ সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস ১৭ জনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছে। হামলায় আটজন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। খবর আল জাজিরা ও আরব নিউজ।

flag syriaসিরিয়ায় তুর্কি বিমান হামলা, সেনাসহ নিহত ২৫

সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সানা জানায়, সিরিয়া উত্তরাঞ্চলীয় কোবানে শহরে সীমান্তচৌকি লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে তুরস্কের সেনাবাহিনী। কুর্দি নিয়ন্ত্রিত সীমান্ত চৌকিগুলোর বেশির ভাগই সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সেনাবাহিনীর। বিমান থেকে বোমা হামলার পাশাপাশি সীমান্তে কামানের গোলাও নিক্ষেপ করেছে তুর্কি সেনারা।

সিরীয় সেনাসূত্র জানায়, হামলা ও সংঘর্ষে অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছে। তবে নিহত ব্যক্তিরা সিরিয়ার সরকারি বাহিনী নাকি কুর্দি বাহিনীর যোদ্ধা, তা সুনির্দিষ্ট করে জানানো হয়নি।

তবে সিরিয়ান অবজারভেটরি জানিয়েছে, সীমান্তের কাছে সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর কয়েকটি চৌকিতে তুরস্কের বিমান হামলায় ১৭ যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে কমপক্ষে তিনজন সিরীয় সেনা। যদিও ‍কুর্দি বার্তা সংস্থা নর্থ প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, তুর্কি হামলায় ২২ সেনা নিহত হয়েছে।

এ হামলার কঠোর জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে দামেস্ক। সানা জানিয়েছে, সামরিক চৌকিতে হামলার সমুচিত জবাব দেবে সিরিয়ার সশস্ত্র বাহিনী।

এদিকে তুরস্কে পাল্টা হামলা চালিয়েছে কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্স (এসডিএফ)। তাদের হামলায় এক তুর্কি সেনা নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

কুর্দি যোদ্ধাদের ‘সন্ত্রাসী’ হিসেবে দেখে এরদোয়ান সরকার। ২০১৬ সাল থেকেই সীমান্তের ওপারে কুর্দি যোদ্ধা ও ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) নিশানা করে ধারাবাহিকভাবে হামলা চালিয়ে আসছে তুরস্ক। সম্প্রতি কুর্দিবিরোধী অভিযান জোরদার করেছে তুরস্ক।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর