advertisement
আপনি পড়ছেন

জাপানের প্রথম নারী ফটোসাংবাদিক হিসেবে পরিচিত সুনেকো সাসামোতো ১০৭ বছর বয়সে মারা গেছেন। স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, গত ১৫ আগস্ট তিনি মারা যান। জিজি প্রেস নিউজ এজেন্সির তথ্য অনুসারে, রাজধানী টোকিওর দক্ষিণে কানাগাওয়া প্রদেশের কামাকুরা শহরের একটি বৃদ্ধাশ্রমে বসবাস করতেন তিনি। খবর আনাদোলু।

japans 1st female photojournalist sasamotoজাপানের প্রথম মহিলা ফটোসাংবাদিক

সাসামোতো ১৯৪১ সালে কাজ শুরু করেন। প্রশান্ত মহাসাগরীয় যুদ্ধের ইভেন্টগুলো কভার করার জন্য তিনি পরিচিতি পেয়েছিলেন। ইউএস লুসি অ্যাওয়ার্ড বিজয়ী সাসামোতো তার কর্মজীবনে একটি সংবাদপত্রে কাজ করেছিলেন এবং পরে ফ্রিল্যান্সিংয়ে চলে যান। তিনি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশবিদেশে ছুটে যেতেন ছবি তুলতে।

জার্মানি, ইতালি এবং জাপানের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় চুক্তি উদযাপনের সময় সাসামোতোর তোলা একটি বৈঠকের ছবি বেশ জনপ্রিয়। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে নিরাপত্তা চুক্তি নিয়ে জাপানের সংঘাতও কভার করেছেন। ছবি তোলা ছিল তার একপ্রকার নেশা। ভয়াবহ যুদ্ধের বহু ছবি তিনি তুলেছেন।

japans 1st female photojournalist sasamoto 1জাপানের প্রথম মহিলা ফটোসাংবাদিক

কর্মজীবন: সাসামোতো টোকিওভিত্তিক নিচিনিচি শিম্বুনের (বর্তমানে মাইনিচি শিম্বুন) খণ্ডকালীন চিত্রশিল্পী হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৪০ সালে ২৬ বছর বয়সে তিনি জাপানের ফটোগ্রাফিক সোসাইটিতে যোগ দেন। এ সময় একজন প্রবেশনারি কর্মচারী হিসেবে উন্নীত হন এবং আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে জাপানের প্রথম মহিলা ফটোসাংবাদিক হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

আমেরিকান জেনারেল ডগলাস ম্যাক আর্থার যখন জাপান দখলের চেষ্টা করছিল, তখন কয়লা খনির ধর্মঘটকারী শ্রমিক এবং প্রতিবাদী ছাত্রদের ছবি তুলেছিলেন সাসামোতো। ছবিটি খুবই খ্যাতি কুড়িয়েছিল ও আলোচিত ছিল।

গাসামোতো ২০১১ সালে একটি ছবির বই প্রকাশ করেন। ২০১৪ সালে তিনি তার ২০১১ সালের বই থেকে নেওয়া ছবি নিয়ে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করেন। ২০১৫ সালে তিনি আরেকটি বই প্রকাশ করেন। ২০১৫ সালে বাম হাত এবং উভয় পা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পরও ছবি তোলায় নিজেকে ক্ষ্যান্ত দেননি।

মৃত্যুর আগে সাসামোটো তার বন্ধুদের সম্মানে ‘হানা আকারি’ নামে একটি প্রকল্পে কাজ করছিলেন। ৎ

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর