আপনি পড়ছেন

কিছুদিন আগে উন্মুক্ত যুগে সবচেয়ে বেশি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়েছে টেনিস। এবার কোর্ট থেকে সরে যাচ্ছেন পুরুষ এককের মহাতারকা রজার ফেদেরার। আজ সোশ্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে অবসরের অগ্রিম ঘোষণা দিয়েছেন কুড়িটি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী সুইস কিংবদন্তি।

roger federar 2020দুই যুগের টেনিস ক্যারিয়ারে কুড়িটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জিতেছেন রজার ফেদেরার

ফেদেরারের বয়স এখন ৪১। খুব স্বাভাবিকভাবেই শরীর আগের মতো সায় দিচ্ছে না। গত কয়েক বছর ধরেই চোট নিয়ে মাঠের বাইরে যাওয়া-আসার মধ্যেই আছেন তিনি। ইনজুরির দুঃস্মৃতির ফাঁকেই ‘ফেড এক্সপ্রেস’ জিতেছেন সবশেষ গ্র্যান্ড স্লাম। সেটাও দুই বছর পেরিয়ে গেছে। অবশেষে কোর্ট থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ফেদেরার।

তার বিদায়ের মঞ্চ আসন্ন লেভার কাপ। এ মাসের শেষ দিকে লন্ডনে অনুষ্ঠিত হবে এই প্রতিযোগিতা। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই টেনিসের একটা যুগের ইতি ঘটতে যাচ্ছে। এ নিয়ে ফেদেরার বলেছেন, ‘গত তিন বছর ধরে ইনজুরি আর অস্ত্রোপচারের ধকল সইতে হচ্ছে আমাকে। কোর্টে ফিরতে আমি কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছি। কিন্তু আমার শরীরের সীমাবদ্ধতা আমি জানি, সেটা পরিষ্কার, আমার বয়স ৪১।’

tennis roger federerসাদা পোশাকেই সবচেয়ে রঙিন দেখা গেছে ফেদেরারকে। উইম্বলডনে আটটি শিরোপা জিতেছেন তিনি

গত দুই বছরে হাঁটুর চোটের কারণে তিনবার সার্জনের ছুরির নিতে যেতে হয়েছে ফেদেরারকে। যেটা এখন যন্ত্রণার নাম হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবার থামতে চান ‘ফেড এক্সপ্রেস, ’২৪ বছর ধরে আমি দেড় হাজারের বেশি ম্যাচ খেলেছি। টেনিস আমাকে এভাবে গ্রহণ করবে সেটা আমি স্বপ্নেও ভাবিনি। আমার প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্যারিয়ার শেষ করার সময় এসে গেছে। আগামী সপ্তাহে লন্ডনে শুরু হতে যাওয়া লেভার কাপই আমার শেষ এটিপি টুর্নামেন্ট।’
১৯৯৮ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে পেশাদার টেনিসে অভিষেক হয় ফেদোরের। সবশেষ ২০২১ সালের জুলাইয়ে উইম্বলডনের শেষ আটে প্রতিযোগিতামূলক টেনিস ম্যাচ খেলেছেন ফেদেরার। গত তিন বছরে ১১টি গ্র্যান্ড স্ল্যামের আটটিই মিস করেছেন তিনি। এসবই তার অবসরে যাওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছিল। বাকি ছিল আনুষ্ঠানিক ঘোষণার। আজ সেটাও চলে এলো।

টেনিসে পুরুষ এককে সর্বোচ্চ তৃতীয় গ্র্যান্ড স্লামজয়ী ফেদেরার। তার মুকুট ২০টি। সবচেয়ে বেশি আটটি জিতেছেন উইম্বলডন থেকে। ২০০৩ সালে এখান থেকেই প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম। এ ছাড়া অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ছয়টি, ইউএস ওপেনে ৫টি এবং ফ্রেঞ্চ ওপেনে একটি শিরোপা জেতেন তিনি। স্পেনের রাফায়েল নাদাল ২২টি এবং সার্বিয়ার নোভাক জোকোভিচ ২১টি ট্রফি জিতেছেন।