advertisement
আপনি পড়ছেন

ক্রিকেট দুনিয়ায় বাংলাদেশের কাছের বন্ধুপ্রতীম দেশ নিউজিল্যান্ড। বড় বড় ক্রিকেট খেলুড়ে দেশগুলো অর্থনৈতিকভাবে লাভজনক নয় জানিয়ে যখন বাংলাদেশকে আতিথ্য দিতে নারাজ, তখন নিউজিল্যান্ড নিয়মিতই টাইগারদের আমন্ত্রণ জানিয়ে আসছে।

bcb grounds committee manager abdul batenবিসিবির গ্রাউন্ডস কমিটির ম্যানেজার আব্দুল বাতেন

এবার নিউজিল্যান্ডের সহযোগিতায় অবকাঠামোতেও উন্নতির চেষ্টা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড,অ বিসিবি। বিশেষ আমন্ত্রণে সোমবার ঢাকায় আসছেন নিউজিল্যান্ডের হেড অব টার্ফ ম্যানেজমেন্ট আয়ান জোসেফ ম্যাকেঞ্জি। মিরপুর, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট স্টেডিয়াম পরিদর্শন করবেন তিনি। বাংলাদেশের কিউরেটরদের নিয়ে ওয়ার্কশপ পরিচালনা করবেন।

তার সহযোগিতায় নিউজিল্যান্ডের আদলে মিরপুর ও বগুড়ার ইনডোরে ছাদ বসাতে চায় বিসিবি। কানাডিয়ান প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় এই ছাদ বসাতে সাহায্য করবে নিউজিল্যান্ড। তাতে করে সারা বছর বিশেষ করে বৃষ্টির সময়ও অনুশীলন করতে পারবেন ক্রিকেটাররা।

বিসিবির গ্রাউন্ডস কমিটির ম্যানেজার আব্দুল বাতেন সোমবার এ সম্পর্কে বলেছেন, ‘উনাকে এনেছি কারণ নিউজিল্যান্ড যে ধরণের উইকেট ও আউটফিল্ড তৈরি করে এ সমস্ত কিছুর সাথে আমরা যে পদ্ধতি অবলম্বন করি এটার সাথে আমরা তুলনা করবো। মাঠগুলো পরিদর্শনের মাধ্যমে উনার বাস্তবিক একটা অভিজ্ঞতা হবে। নিউজিল্যান্ডে উইকেট কীভাবে তৈরি হয় সেটা সম্পর্কে আমরা বিস্তারিত জানতে পারবো।’

মিরপুর ও বগুড়ার ইনডোরে ছাদ বসানোর বিষয়ে গ্রাউন্ডস কমিটির ম্যানেজার বলেন, ‘বগুড়ার উইকেট আমরা নিউজিল্যান্ডের আদলে বানানোর চেষ্টা করেছি। মিরপুর একাডেমি ও ইনডোরও সারাবছর, বৃষ্টির সময়ও যেন অনুশীলন করতে পারে সেই ব্যবস্থা আমরা নিব, যেটা নিউজিল্যান্ডে আছে। ইতোমধ্যে চূড়ান্ত পর্যায়ে আছে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ইনডোরে যে ছাদটা আছে, বৃষ্টির সময় থাকে অন্য সময় সরে যায় সেটা ইতোমধ্যে আমাদের পরিকল্পনার চূড়ান্ত পর্যায়ে আছে। খুব দ্রুতই আমাদের এখানে এটা বসানো হবে, একটা কানাডিয়ান কোম্পানি নিউজিল্যান্ডে করেছে, নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সহায়তায় এটা আমরা বাংলাদেশে ব্যবস্থা করছি।’