আপনি পড়ছেন

২০২৩ সালে যুদ্ধে সহায়তার জন্য ইউক্রেনকে ২৬৩ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাজ্য। আগামীকাল ২১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক সিটিতে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে (ইউএনজিএ) ভাষণ দেওয়ার সময় ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস এ ঘোষণা দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ফিন্যান্সিয়াল টাইমস এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

liz trasলিজ ট্রাস

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ভাষণে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমা সরকারগুলোকে ইউক্রেনের প্রতি তাদের সমর্থন বাড়ানোর জন্য চাপ দেবেন বলেও আশা করা হচ্ছে। অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে আসার আগে ইউক্রেনের জনগণের উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে ট্রাস বলেন, যুক্তরাজ্য প্রতিটি পদক্ষেপে আপনাদের সাথে থাকবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লন্ডনের ২৬৩ কোটি ডলারের প্রতিশ্রুতির ফলে ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম সামরিক দাতা হয়ে উঠবে যুক্তরাজ্য। এতে আরও বলা হয়, যুক্তরাজ্যের সামরিক সহায়তা হিসেবে ইউক্রেনকে ২০১৫ সাল থেকে শত শত রকেট, ১২০টি সাঁজোয়া যান, পাঁচটি বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দেওয়া হয়েছে। একই সময়ে প্রায় ২৭ হাজার ইউক্রেনীয় সৈন্যকে ব্রিটিশ সামরিক বাহিনীর দ্বারা প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

ukraine troops recaptureরুশ সেনাদের হাত থেকে একটি গ্রাম পুনরুদ্ধারের পর ইউক্রেনীয় সেনাদের উল্লাস

এদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বুধবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভার্চুয়ালি ভাষণে বিশ্বের দেশগুলোর প্রতি অস্ত্র ও মানবিক সহায়তা তরান্বিত করতে আহ্বান জানাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর আগে সোমববার এক টেলিভিশন ভাষণে তিনি বলেন, রুশ দখলকারীরা এখন স্পষ্টতই আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। ইউক্রেনীয় বাহিনীর জোর হামলার মুখে তারা বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে যাচ্ছে। উত্তর-পূর্ব খারকিভ অঞ্চল ইউক্রেনের হাতে ফিরে আসায় সেখানে স্থিতিশীলতা ফিরে এসেছে।

সম্প্রতি খারকিভ থেকে রুশ সেনাদের সরিয়ে দেয় ইউক্রেনীয় সেনারা। তারা সেখানে হাজার হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা পুনরুদ্ধার করেছে বলে দাবি করেছে। তারা এখন লুহানস্কে রাশিয়ার সেনাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছে। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী বলছে, তারা খেরসন অঞ্চলের নোভা কাখোভকার কাছে একটি নদীতে রাশিয়ান সেনা ও সরঞ্জাম বহনকারী একটি বার্জ ডুবিয়ে দিয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর