advertisement
আপনি পড়ছেন

দীর্ঘদিন ধরেই আর্থিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে লেবানন। সম্প্রতি অবস্থা আরো করুণ হয়েছে। এ অবস্থায় নিরাপত্তার অভাবে লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে বলে বলে জানিয়েছে দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন। খবর বিবিসি।

lebanon bank closeবন্ধ থাকা ব্যাংক

জানা গেছে, লেবাননের আর্থিক অবস্থা এতটাই করুণ হয়ে ওঠে যে, নিজেদের জমানো অর্থই তুলতে পারছিল না গ্রাহকরা। এই পরিস্থিতিতে নিরুপায় কিছু গ্রাহক গত সপ্তাহে বেশ কয়েকটি ব্যাংকে অস্ত্র নিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তাদের জিম্মি করে নিজেদের অর্থ উদ্ধার করে।

প্রথমে এক ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীর বোন চিকিৎসার বিল মেটাতে নিজের সঞ্চিত অর্থ তুলতে চাইছিলেন। কিন্তু কয়েকবার চেষ্টার পরও ব্যাংক তার অর্থ ছাড় করাতে পারেনি। এ অবস্থায় তিনি একটি খেলনা পিস্তল নিয়ে ব্যাংকে ঢুকে ভয় দেখিয়ে তার অর্থ তুলে নেন। এই খবর ছড়িয়ে পড়লে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে একই ধরনের আরও কয়েকটি ঘটনা ঘটে। এমনকি গত শুক্রবার একদিনে পাঁচটি স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

lebanon bank glass breakগ্রাহকদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যাংক

গত আগস্ট মাসেও এক ব্যক্তি এ পন্থা অবলম্বন করে ব্যাংক থেকে টাকা তুলেছিলেন। তবে এ মাসে এসে তা ব্যাপকাকারে প্রয়োগ হতে থাকে। ফলে ব্যাংকগুলোর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এ রকম আরও ঘটনার আশঙ্কা করে প্রথম দফায় তিনদিন এবং পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন। সংস্থাটি বলছে, চলমান পরিস্থিতিতে তাদের কর্মীরা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এই ঝুঁকি প্রশমনে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, লেবানন এখন চরম আর্থিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। দেশটির ৮০ শতাংশ মানুষ খাদ্য, জ্বালানি ও ওষুধ কেনার জন্য সংগ্রাম করছেন। আবার ব্যাংকে টাকা জমা থাকার পরও সে টাকা তুলতে না পারায় বিপদের মুখে আছেন অনেকে। এমতাবস্থায় যে কোনো পন্থায় ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নেওয়ার বিষয়টি সাধারণ মানুষের ধন্যবাদ পাচ্ছে। আর তাতেই বিপদের আশঙ্কা করছে ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন।