advertisement
আপনি পড়ছেন

ইউক্রেনের পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলের রাশিয়াপন্থী কর্মকর্তারা রুশ ফেডারেশনে যোগদানের প্রশ্নে আগামীকাল থেকে ধাপে ধাপে গণভোট আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই গণভোট আয়োজনে সর্বাত্মক সহযোগিতা ও রিজার্ভ সৈন্য তলবের ঘোষণা দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় রাশিয়ার এ পদক্ষেপে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। রুশ সরকার ও নাগরিকদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ব্যবস্থার ঘোষণাও এসেছে।

russia mobilization tlsd এর আগে কেবল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় রাশিয়া রিজার্ভ সৈন্য তলব করেছিল

জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা বলেছেন, পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার তো দূরের কথা, রাশিয়া যে ওই অস্ত্র ব্যবহারের হুমকি দিয়েছে, এটাই কোনোভাবে গ্রহণযোগ্য নয়। জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশি জি-৭ বৈঠকে বলেছেন, জাপান সরকার রাশিয়ার সামরিক ও রাসায়নিক শিল্পখাতের আরও কিছু প্রতিষ্ঠানকে নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এক বিবৃতিতে রাশিয়ার নেতৃবৃন্দ এবং দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, খেরসন ও জাপরোঝিয়ায় গণভোট আয়োজনে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

ইইউর পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক হাই রিপ্রেজেনটেটিভ জোসেফ বোরেল ফন্তেলেস বলেছেন, পুতিন যে ঘোষণা দিয়েছেন সেটা আরেক দফা উসকানি সৃষ্টি করবে। পুতিনের ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এডহক সভা ডাকা হয়েছিল। সভায় অন্যান্য অংশীদারদের সঙ্গে সমন্বয়ের ভিত্তিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যত দ্রুত সম্ভব নতুন নিবারণমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ভাষণে বলেছেন, জাতিসংঘ সনদের সব মৌলনীতি লঙ্ঘন করেছে রাশিয়া। আর ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রন বলেছেন, ইইউকে অবশ্যই রাশিয়ার ওপর আরও চাপ প্রয়োগ করতে হবে।

রাশিয়ার ইতিহাসে এ যাবৎ কেবল তিনবার রিজার্ভ সৈন্য তলবের ঘটনা ঘটেছে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে জার কিনোলাস ১৯১৪ সালের ১৮ এপ্রিল রিজার্ভ সৈন্য নিয়োগের ঘোষণা দেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪১ সালের ২৩ এপ্রিল সোভিয়েত নেতা জোসেফ স্ট্যালিন রিজার্ভ সৈন্য তলবের ঘোষণা দিয়েছিলেন। এরপর চলতি বছরের ২১ সেপ্টেম্বর ইউক্রেনের সঙ্গে সংঘাত চলাকালে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন তিন লাখ রিজার্ভ সৈন্য তলবে আদেশ জারি করেছেন।

এর আগে মঙ্গলবার রুশ পার্লামেন্ট যুদ্ধকালীন নিয়োগ, যুদ্ধাপরাধের সাজাসহ বিভিন্ন বিষয়ে কিছু সংশোধনীর মাধ্যমে দণ্ডবিধিতে পরিবর্তন আনে। এতে সামরিক বাহিনীতে যোগদানের সমন অমান্য করা, যুদ্ধক্ষেত্র ছেড়ে আসা, যুদ্ধকালে লুটপাট ও তহবিল তছরুপে ১২-১৫ বছরের সাজাসহ কঠোর শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে।

লক্ষণীয় বিষয় হলো, গতকাল সকালে পুতিন রিজার্ভ সৈন্য তলবের আদেশ জারির পর রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু মোট তিন লাখ অভিজ্ঞ সৈন্যকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ করা হবে বলে জানান। এরপর সন্ধ্যায় খবর বেরোয়, তিন লাখ অবসরপ্রান্ত সৈন্যের কাছে এরইমধ্যে সামরিক বাহিনীতে যোগদানের জন্য লিখিত সমন পৌঁছে গেছে এবং তাদেরকে বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা থেকে সকাল ৭টার মধ্যে সংশ্লিষ্ট কার্যালয়ে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে।

রিজার্ভ সৈন্য তলবের খবরে গতকাল সন্ধ্যায় মস্কোতে প্রতিবাদ বিক্ষোভ করেছে কয়েকশ নাগরিক। বিক্ষোভরতদের আটক করে মস্কো মিলিটারি ডিস্ট্রিক্ট কমিশনের তরফ থেকে সমন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদ পোর্টাল ওভিডি-ইনফো।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জার্মান সংবাদমাধ্যম বিল্ডকে বলেছেন, রাশিয়া পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করবে বলে আমি বিশ্বাস করি না। পৃথক খবরে ইউক্রেনের পার্লামেন্ট সামরিক বাহিনীতে নারী স্বেচ্ছাসেবী নিবন্ধনের একটি প্রস্তাব পাশ করেছে।

রাশিয়ার প্রতিবেশী দেশ ফিনল্যান্ডের সরকার সে দেশে রুশ পর্যটকদের প্রবেশে বিধিনিষেধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট সলি নিনিস্তো বলেছেন, রুশ প্রেসিডেন্টের ঘোষণা ইউক্রেন পরিস্থিতির গভীর অবনতির আশঙ্কা জাগিয়ে তুলেছে।

লাটভিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এডগার্স রিঙ্কেভিকস রাশিয়ার বিরুদ্ধে নতুন ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ইউরোপের জন্য রাশিয়া ততটা বিপজ্জনক, যতটা গত শতাব্দীতে নাজি জার্মানি ছিল।

লাটভিয়া ও এস্তোনিয়ার সরকার তাদের দেশে কোনো রুশ নাগরিককে আশ্রয় না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। এস্তোনিয়া সরকার সেদেশে রুশ ও রুশ-বংশোদ্ভূত নাগরিকদের মালিকানাধীন অস্ত্র জব্দ করা শুরু করেছে। লিথুয়ানিয়া সরকার তাদের সীমান্তরক্ষী বাহিনীকে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর