আপনি পড়ছেন

বাজারে চাল, আটা-ময়দা, ডিম, মুরগির মাংস ও টয়লেট্রিজ পণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি এবং কৃত্রিম সংকটের অভিযোগে ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন এ মামলা করেছে বলে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) জানা গেছে। তবে অভিযুক্ত কোম্পানিগুলোর সঙ্গে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে যোগাযোগ করা যায়নি।

unilever city group kazi firms bangladesh edible oil rashid rice paragonইউনিলিভারসহ ১১ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা

টানা কয়েক মাস ধরে দেশে চাল, তেল, আটা, ডিম, মুরগি, সাবান, ডিটারজেন্ট ও টুথপেস্টের বাজারে অস্থিরতা চলছে। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নিয়মিত বাজার তদারকি করে। পাশাপাশি পণ্যের উৎপাদনকারী ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিয়ে সভা করে; যেখানে অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির অভিযোগ ওঠে।

কমিশন সূত্র জানায়, চালের মূল্যবৃদ্ধির জন্য রশিদ অ্যাগ্রো ফুড প্রোডাক্টস, বেলকন গ্রুপ, সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেড; আটা-ময়দার জন্য সিটি গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ; ডিমের জন্য ডিম ব্যবসায়ী-আড়তদার সমবায় সমিতির সভাপতি আমানউল্লাহ, প্যারাগন পোলট্রি, কাজী ফার্মস গ্রুপের এমডি কাজী জাহেদুল ইসলাম; মুরগির জন্য কাজী ফার্মস গ্রুপের এমডি কাজী জাহেদুল ইসলাম, প্যারাগন পোলট্রি লিমিটেড; টয়লেট্রিজ পণ্যের জন্য ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের এমডিসহ ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়েছে। যদিও একই প্রতিষ্ঠানের নাম এ তালিকায় একাধিকবার এসেছে।

প্রতিযোগিতা কমিশনের সচিব মো. আবদুস সবুর গণমাধ্যকে বলেন, আইন অনুযায়ী এই ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ মাসের ২৬ তারিখ থেকে কোম্পানিগুলোকে ধারাবাহিকভাবে শুনানির জন্য ডাকা হয়েছে।

এদিকে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এইচ এম শফিকুজ্জামান বলেন, যারা বাজারে অস্থিরতা তৈরির জন্য দায়ী, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ডিমের বাজারে কারসাজিতে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদনও পাঠিয়েছে ভোক্তা অধিদপ্তর ।

এদিকে কয়েক মাস ধরে বাজারে চালের দাম বেশি। মাসখানেক আগে মোটা চালের দাম উঠেছিল প্রতি কেজি ৫৫ টাকার ওপরে। একইভাবে চিকন চালের দাম উঠেছিল প্রতি কেজি ৮৫ টাকা পর্যন্ত। বাজারে অভিযান শুরু ও চাল আমদানির কারণে তা আবার কমতে শুরু করেছে।

মাসখানেক আগে মুরগি ও ডিমের বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়। তখন ব্রয়লার মুরগির দাম প্রতি কেজি ২০০ টাকার ওপরে ওঠে। অভিযানের কারণে ডিম ও মুরগির দাম মাঝে কিছুদিন কমলেও এখন আবার বেড়েছে। ফার্মের মুরগির ডিম প্রতি ডজন ১৪০ থেকে ১৪৫ টাকায় এবং ব্রয়লার মুরগি প্রতি কেজি ১৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর