আপনি পড়ছেন

সৌদি আরবের শুরা কাউন্সিলের স্পিকার আবদুল্লাহ বিন মুহাম্মাদ আল-শেখ অন্যের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ বন্ধ করতে ইরানের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। একই সাথে তিনি দেশটিকে ইয়েমেনে হুথিদের তোষণ বন্ধ করার ছবক দিয়েছেন। ওমানের রাজধানী মাস্কাটে উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের (জিসিসি) শুরা কাউন্সিলে তিনি এ আহ্বান জানান। মিডল ইস্ট মনিটর।

flag saudi arabia and iranইরানকে ছবক দিলো সৌদি আরব

সৌদি স্পিকার বলেন, প্রতিবেশী হিসেবে ইরানের সাথে সৌদি আরবের ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক সম্পর্ক রয়েছে। আমরা ইরানের কাছে প্রত্যাশা করব, দেশটি যেন আন্তর্জাতিক নীতি মেনে চলার মাধ্যমে এই অঞ্চলের দেশগুলোর সাথে সহযোগিতামূলক আচরণ করে। আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) নিয়ম মেনে সংস্থাটিকে সহযোগিতা করার জন্যও ইরানের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

সৌদি স্পিকার ইয়েমেনে জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় যুদ্ধবিরতিকে সমর্থন করার জন্য সৌদি আরবের প্রতিশ্রুতি নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তিনি যুদ্ধবিরতির সাফল্যে আগ্রহী আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাথে রাজি হওয়ায় ইয়েমেনি হুথিদের ওপর ইরানের তোষণ নীতি বন্ধের আহ্বান জানান।

সৌদি নেতা বলেন, নিরাপত্তা, স্থিতিশীলতা এবং সমৃদ্ধিই এই অঞ্চলের ভবিষ্যৎ নির্ভর করে। আমরা এই দৃষ্টিভঙ্গী পোষণ করি। আমরা চাই আঞ্চলিক দেশগুলোর মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধা বজায় থাকুক এবং সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সম্পর্ক জোরদার হোক। নিরাপত্তা ও রাজনৈতিক চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করেই আমাদের এগিয়ে যাওয়া উচিত।

খবরে বলা হয়, ২০১৬ সাল থেকে সৌদি আরব এবং ইরান দ্বিপক্ষীয় আলোচনায় নিযুক্ত রয়েছে। ইরাকের মধ্যস্থতায় দুদেশ সম্পর্ক পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে এ পর্যন্ত পাঁচ দফা আলোচনার আয়োজন করেছে। চলতি মাসের মাসের শুরুর দিকে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সৌদি-ইরানের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি হতে চলেছে। এজন্য দুদেশ আলোচনার পথ বেছে নিয়েছে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর