advertisement
আপনি পড়ছেন

ভারতে মুসলিমদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে গঠিত পুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার (পিএফআই) শতাধিক নেতাকর্মীকে আটক করেছে দেশটির জাতীয় তদন্ত সংস্থা-এনআইএ। আজ বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) ভোর থেকে দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, কেরালা, তামিলনাড়ু, কর্ণাটকসহ অন্তত ১৫টি রাজ্যে পিএফআই নেতাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সংগঠনটির বিরুদ্ধে সহিংসতায় উস্কানির অভিযোগ এনেছে গোয়েন্দা সংস্থাটি। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মুসলিম নেতারা। ধরপাকড়ের প্রতিবাদে শুক্রবার কেরালায় হরতাল ডেকেছেন তারা। খবর এনডিটিভি ও আল জাজিরা।

india muslim arrestপিএফআই মুসলিম নেতাদের গ্রেপ্তারে ভারতে অভিযান

ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিমদের অধিকার আদায়ে ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় পপুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়া (পিএফআই)। কেরালায় ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট, কর্ণাটক রাজ্যের কর্নাটক ফোরাম ফর ডিগনিটি ও তামিলনাড়ুতে মানিথা নীতি পাসারাই- এই তিনটি দল মিলে পিএফআই গড়ে তোলে। ২০০৯ সালের দিকে সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি অব ইন্ডিয়া (এসডিপিআই) নামে একটি রাজনৈতিক দল প্রতিষ্ঠা করে পিএফআই। বিভিন্ন রাজ্যে নির্বাচনও করে থাকে দলটি।

তবে ভারতের বিজেপি সরকারের দৃষ্টিতে, পিএফআই সংগঠনের সঙ্গে জঙ্গিবাদীদের সম্পর্ক রয়েছে। নরেন্দ্র মোদির সরকারের অভিযোগ, সহিংসতায় উস্কানি দিয়ে থাকে পিএফআই।

তাই দলটিকে দমনে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে রাজ্যে রাজ্যে অভিযান শুরু করে এনআইএ। গোয়েন্দা দপ্তরটির সঙ্গে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটও (ইডি) ও বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশ মিলে চালায় যৌথ অভিযান।

অভিযানে মোট ১০৬ নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এরমধ্যে কেরালায় ২২ জন, মহারাষ্ট্রে ২০ জন, কর্ণাটকে ২০ জন, অন্ধ্রপ্রদেশে ৫ জন, আসামে ৯ জন, দিল্লিতে ৩ জন, মধ্যপ্রদেশে ৪ জন, পুদুচেরিতে ৩ জন, তামিলনাড়ুতে ১০ জন, উত্তর প্রদেশে ৮ জন এবং রাজস্থানে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এনআইএর ধরপাকড়ের পর তামিলনাড়ুতে বিক্ষোভ করেছে পপুলার ফ্রন্ট। শুক্রবার কেরালায় আধাবেলা হরতাল ডেকেছে দলটি।

এক বিবৃতিতে সংগঠনটি অভিযোগ করেছে, দলের নেতাকর্মীদের অযথা হেনস্তা করা হচ্ছে। প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর থামিয়ে দিতে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোকে দমনপীড়নে ব্যবহার করছে নরেন্দ্র মোদির বিজেপি সরকার। কোনো জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে পিএফআইয়ের কোনো যোগাযোগ নেই।

দলটির দাবি, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদসহ আসামে মুসলিমদের উচ্ছেদ অভিযানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ অব্যাহত রাখায় নেতাকর্মীদের গণগ্রেপ্তার চালাচ্ছে হিন্দুত্ববাদী সরকার।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর