আপনি পড়ছেন

পাকিস্তান এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার চলমান টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগের চার ম্যাচে রানের বন্যা বইয়েছে। দুটি ম্যাচেই ২০০ ওপরে রান হয়েছে। এর মধ্যে একবার ১৯৯ রান করেও জিততে পারেনি ইংলিশরা। সেদিক থেকে নিজেদের ভাগ্যবান মনে করতেই পারে বাবর আজমের দল। কারণ মামুলি পুঁজি নিয়ে এবার বাজিমাত করেছে স্বাগতিকরা।

pakistan team 4সিরিজে এগিয়ে গেল বাবর আজমের দল

সাত ম্যাচ সিরিজের পঞ্চম টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডকে ৬ রানে পরাজিত করেছে পাকিস্তান। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করতে নেমে ১৯ ওভারে ১৪৫ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিক শিবির। জবাব দিতে নেমে ১৩৯ রানের বেশি করতে পারেনি মঈন আলি অ্যান্ড কোং। লো স্কোরিং ম্যাচে ফিফটি হাঁকিয়ে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন পাকিস্তানের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ইনিংসের শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। ফিল সল্ট, অ্যালেক্স হেলস, বেন ডাকেট, হ্যারি ব্রুকরা দলকে হতাশ করেছেন। দীর্ঘক্ষণ ক্রিজে থাকলেও রান রেটের সাথে পাল্লা দিয়ে ব্যাট করতে পারেননি ডেভিড মালান। ৩৫ বলে ৩৬ রান করেন এই হার্ডহিটার। 

ব্যতিক্রম ছিলেন কেবল মঈন। ৩৭ বলে অপরাজিত ৫১ রানের ইনিংস খেলেন অধিনায়ক। এরপরও শেষ ১২ বলে ২৮ রানের সমীকরণ মেলাতে ব্যর্থ হয়েছে অতিথিরা। শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের দরকার ছিল ১৫ রান। অভিষিক্ত আমির জামালের করা সে ওভার থেকে ৯ রান নিতে পেরেছে ইংল্যান্ড।

এর আগে ইংল্যান্ডের আমন্ত্রণে আগে ব্যাট করতে নেমে এক রিজওয়ান ছাড়া আর কেউই প্রতিপক্ষের বোলারদের সামনে দাঁড়াতে পারেননি। ৪৬ বলে ২ ছয় এবং ৩ ছয়ের মারে ৬৩ রান করেন এই ওপেনার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৫ রান আসে ইফতেখার আহমেদের ব্যাট থেকে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর