আপনি পড়ছেন

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ‘কমপ্লিট প্যাকেজ’ পারফর্ম করেছে টিম ইন্ডিয়া। নিজ নিজ দায়িত্বে শতভাগ দিয়েছেন বোলার এবং ব্যাটসম্যানরা। সে কারণে পুরো ম্যাচের লাগাম ছিল রোহিত শর্মাদের হাতে। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টেম্বা বাভুমা অ্যান্ড কোংকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছে রাহুল দ্রাবিড়ের শিষ্যরা।

india vs south africa 7বড় জয় পেয়েছে রোহিত শর্মারা

কেরালার গ্রিনফিল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ভারতের জয়ের ভিত গড়ে দেন মূলত বোলাররা। দিপক চাহার, আর্শদীপ সিং, হার্শাল প্যাটেলদের গতি এবং সুইংয়ের সামনে অসহায় আত্মসমর্পন করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকার টপঅর্ডার। অতিথিদের অসহায়ত্বের মাত্রাটা ছিল খুবই বেশি। ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে বাভুমাকে বোল্ড করে ধ্বংসযজ্ঞের সূচনা করেন চাহার।

বাভুমা ফিরে যাওয়ার পর দলের ব্যাটিং অর্ডারে বড় ধরনের ধস নামে। দলীয় ৯ রানেই একে একে সাজঘরের পথ ধরেন কুইন্টন ডি কক, রাইলি রুশো, ডেভিড মিলার, ট্রিস্টান স্টাবসরা। শেষের তিনজন রানের খাতা খুলতে পারেননি। এইডেন মার্করামের ব্যাটে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্যাটেলের শিকার হওয়ার আগে ২৪ বলে ২৫ রান করেন মার্করাম।

দলের ক্রান্তিকালে সাজঘরে ফেরার আগে ২৪ রান করেন ওয়েইন পার্নেল। এজন্য ৩৭ বল খেলেছেন এই পেসার। ধ্বংসযজ্ঞের দিনে ব্যাট হাতে সবচেয়ে সফল কেশব মহারাজ। ৩৫ বলে ৪১ রানের ইনিংস খেলেন এই স্পিনিং অলরাউন্ডার। এরপরও ১০৬ রানের বেশি করা হয়নি সফরকারীদের। ৩২ রানের বিনিময়ে ২ উইকেট নেন আর্শদীপ। হার্শাল ও চাহারে শিকার দুটি করে উইকেট।

ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ভারতও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে। দলীয় ১৭ রানেই ফেরেন দলের অন্যতম সেরা দুই ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলি। এরপর ৯৩ রানের নিরবচ্ছিন্ন জুটি গড়ে স্বাগতিকদের জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন লোকেশ রাহুল ও সূর্যকুমার যাদব। দুজনই ফিফটি হাঁকান। রাহুল ৫১ ও সূর্যকুমার ৫০ রানে অপরাজিত থাকেন।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর