আপনি পড়ছেন

ব্যাট কিংবা বল, দুই বিভাগেই নিজের ছায়া হয়ে রইলেন সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশের দুই ফরম্যাটের অধিনায়কের পারফরম্যান্সের প্রভাব পড়েছে গায়ানা আমাজন ওয়ারিয়র্সের ওপর। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, সিপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে জ্যামাইকা তালাওয়াসের কাছে ৩৭ রান হেরে বিদায় নিয়েছে শেমরন হেটমায়ার বাহিনী।

shakib al hasan cpl 5৫ রান করেছেন সাকিব

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় ভোরে প্রভিডেন্স ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ব্যাটসম্যানরাই জ্যামাইকার জয়ের ভীত গড়ে দেয়। টস হারা দলটি আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২২৬ রান জড়ো করে। ফ্র্যাঞ্চাইজিটির পাহাড়সম সংগ্রহে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন শামারাহ ব্রুকস। গায়ানার বোলারদের ওপর টর্নেডো বইয়ে দিয়ে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি তুলে নেন ব্রুকস। ৫২ বলের মোকাবেলায় ৭ চার এবং ৮ ছয়ের সাহায্যে ১০৯ রানের ইনিংস খেলেন এই ডানহাতি।

ইমাম ওয়াসিম, রোভম্যান পাওয়েলরাও করেন ঝড়ো ব্যাটিং। মাত্র ১৫ বলে ৪১ রান করেন ইমাদ। ৪ চারের পাশাপাশি ৩ ছয় মারেন এই পাক তারকা ক্রিকেটার। ৩৭ রান আসে পাওয়েলের ব্যাট থেকে। এজন্য ২৩ বল খেলেন ২৯ বছর বয়সী ক্রিকেটার। ২ উইকেট নিতে ৪৩ রান খরচ করেছেন রোমিও শেফার্ড। ৩ ওভার বল করে ৩০ রানের বিনিময়ে উইকেটশূন্য ছিলেন সাকিব।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই পল স্টার্লিংকে হারালেও রান রেটের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিল গায়ানা। তবে ষষ্ঠ ওভারে শাই হোপ ফিরে গেলে রানের গতি কমে আসে। ১৩ বলে ৩১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন হোপ। কাঁধে বড় দায়িত্ব থাকার পরও ব্যাট হাতেও হতাশ করেন সাকিব। চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে হাঁটার আগে ৬ বলে করেন মাত্র ৫ রান।

এরপর কিমো পল, গোদাকেশ মোটি, ওডিন স্মিথরা চেষ্টা করেও হার এড়াতে পারেননি। ৩৭ বলে ৫৬ রান করে ইমাদের বলে বোল্ড হন পল। মোটি ও স্মিথের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ২২ ও ২৪ রান। নির্ধারিত ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৮৯ থামে গায়ানা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর