আপনি পড়ছেন

ফাইভজির যুগে প্রবেশ করেছে ভারত। দিল্লির প্রগতি ময়দানে শুরু হওয়া ইন্ডিয়া মোবাইল কংগ্রেসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শনিবার দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা ফাইভজির উদ্বোধন করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময় মোদির সাথে উপস্থিত ছিলেন ভারতের প্রধান তিন টেলিকম সংস্থা জিও, ভোডাফোন, এয়ারটেলের কর্মকর্তারা।

modi 5gফাইভজি ইন্টারনেট যুগে ভারত

ভারত সরকার আশা করছে, উচ্চগতির ফাইভজি মোবাইল ইন্টারনেট দেশটির জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে ও গবেষণার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

আহমেদাবাদ, বেঙ্গালুরু, চণ্ডীগড়, চেন্নাই, দিল্লি, গান্ধীনগর, গুরুগ্রাম, হায়দ্রাবাদ, জামনগর, কলকাতা, লখনউ, মুম্বাই, পুনে এবং বারাণসীসহ ভারতের ২২টি শহরে প্রাথমিকভাবে ফাইভজি নেটওয়ার্ক চালু করা হয়েছে।

এয়ারটেল গ্রাহকরা আজ থেকেই কয়েকটি শহরে ফাইভজি নেটওয়ার্কের অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন। যদি ব্যবহারকারীর ফাইভজি ডিভাইস থাকে।

অন্যদিকে, রিলায়েন্স জিও ২৪ অক্টোবর থেকে চেন্নাই, দিল্লি, কলকাতা এবং মুম্বাইয়ে ফাইভজি সেবা প্রদান করবে।

ফাইভজিতে প্রতি সেকেন্ডে ডাউনলোড স্পিড ১০ থেকে ৫০ গিগাবাইট। ফোরজিতে এই গতি ১০ থেকে ২০ মেগাবাইট। অর্থাৎ ফোরজির চেয়ে ফাইভজির গতি ১০০ থেকে ২৫০ গুণ পর্যন্ত বেশি। ফলে ফাইভজিতে স্বয়ংক্রিয় গাড়ি, যানবাহন চালানো, রোবট দিয়ে অস্ত্রোপচার, ড্রোন দিয়ে কৃষিকাজ, ভিআর গেইমিং, এআর এবং আইওটির ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর