আপনি পড়ছেন

ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি এক ভিডিও বার্তায় দাবি করেছেন, দোনেৎস্ক অঞ্চলের একটি শহর লাইমান থেকে রুশ সেনাদের পুরোপুরি বিতাড়িত করা হয়েছে। রোববার (২ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শহরটি নিয়ন্ত্রণে নেয় ইউক্রেন। ইউক্রেনের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা ইউক্রিনফর্ম নিউজ এজেন্সির বরাতে এ খবর জানিয়েছে আনাদোলু।

president zelenskyyইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি

এর আগে গত শনিবার সন্ধ্যায় জেলেনস্কি জানিয়েছিলেন, দোনেৎস্কের বন্দর শহরটিতে লড়াই চলছে। কোথাও কোথাও এরইমধ্যে ইউক্রেনের পতাকা উড়তে শুরু করেছে। তারও আগে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, শনিবার ইউক্রেনের সৈন্যরা শহরে প্রবেশ করতে শুরু করেছে।

এদিকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় শনিবার জানিয়েছে, সাময়িক কিছু অসুবিধার কারণে রাশিয়া ও তার মিত্র সেনারা দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের ক্রাসনি বন্দর থেকে সুবিধাজনক এলাকায় সরে গেছে।

lyman cityলাইম্যান শহর এখন রুশসেনামুক্ত

গত শুক্রবারই রাশিয়া এ অঞ্চলকে নিজেদের সাথে সংযুক্ত করার ঘোষণা দেয়। বিষয়টির দিকে ইঙ্গিত করে জেলেনস্কি বলেন, দোনেৎস্কের শহর লাইমানে এখন ইউক্রেনের পতাকা উড়ছে। সেখানে ছদ্ম গণভোটের কোনো চিহ্নই নেই। এটাই স্বাভাবিক। ইউক্রেনের অঞ্চলগুলো ইউক্রেনের কাছেই ফিরে আসবে, সেটা পূর্ব ও দক্ষিণ উভয় দিক থেকেই। আমরা বরং ক্রিমিয়াকেও আমাদের মানচিত্রে ফিরিয়ে আনতে চাইছি, যেটা রাশিয়া ২০১৪ সালে সংযুক্ত করেছিল। আমাদের এ পতাকা সব জায়গাতেই উড়বে।

গত ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা চালায়। প্রথমে বলা হয়েছিল সপ্তাহ দুই-একের মধ্যে রাশিয়ার এ অভিযান শেষ হবে। কিন্তু সাত মাস পেরিয়ে যাওয়ার পরও কোনো পক্ষ থেকেই যুদ্ধ থামার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর