আপনি পড়ছেন

চলতি মৌসুমের শুরু থেকেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। প্রায় সব ম্যাচেই এই তারকা খেলোয়াড়কে না রেখেই শুরুর একাদশ সাজাচ্ছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ জায়ান্টদের হেড কোচ এরিক টেন হ্যাগ। এবারের ঘটনা পর্তুগীজ অধিনায়কের সমর্থকদের জন্য আরও মর্মাহত হওয়ার মতো। 

ronaldo in the sidebenchসতীর্থ এবং স্টাফদের সাথে বেঞ্চে বসে আছেন পর্তুগীজ অধিনায়ক

লিগে গতকাল ম্যানইউ’র প্রতিপক্ষ ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যানচেস্টার ডার্বিতে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে পাত্তা পায়নি টেন হ্যাগের শিষ্যরা। ইলকাই গান্ডোগানের দলের কাছে ৬-৩ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে ঐতিহ্যবাহী ক্লাবটি। দলের এমন নাজেহাল অবস্থার দিনে মাঠে নামা হয়নি রোনালদোর। পুরো ম্যাচে সাইডবেঞ্চ গরম করেছেন সাবেক জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড। তাতেই একাধিকবার টিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে রোনালদোর বিমর্ষ মুখ।

ম্যানসিটির বিপক্ষে চলমান প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের সপ্তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল ম্যানইউ। আগের ছয় লিগ ম্যাচে মাত্র একটিতে শুরুর একাদশে জায়গা হয়েছিল রোনালদোর। গত ১৩ আগস্ট জিটেক কমিউনিটি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সে ম্যাচে স্বাগতিক ব্রেন্টফোর্ডের কাছে ৪-০ গোলে হেরে যায় টেন হ্যাগের দল।

তবে ইউরোপের দ্বিতীয় মর্যাদাপূর্ণ প্রতিযোগিতা ইউরোপা লিগে রিয়াল সোসিয়েদাদ এবং শেরিফের বিপক্ষে শুরুর একাদশে জায়গা পেয়েছিলেন রোনালদো। এরমধ্যে ১৫ সেপ্টেম্বর শেরিফকে ২-০ ব্যবধানে হারানোর দিনে স্পট কিক থেকে একটি গোল করেন পর্তুগিজ যুবরাজ।

রোনালদোর সাইডবেঞ্চ গরম করার দিনে মার্কাস রাশফোর্ড, জেডন সাঞ্চো, ব্রুনো ফার্নান্দেজ ও অ্যান্থনিকে দিয়ে আক্রমণভাগ সাজান টেন হ্যাগ। বিরতির পর বদলি হিসেবে অ্যান্থনি মার্শিয়ালকে মাঠে নামান ম্যানইউ বস। জোড়া গোল করেন এই ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড। একবার কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায় বল পাঠান ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার অ্যান্থনি।

অবশ্য ম্যানইউ তিন গোল করার আগেই আর্লিং হাল্যান্ড ও ফিল ফোডেনের দুর্দান্ত পারফম্যান্সে ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ হয়ে করে নেয় পোপ গার্দিওলার ম্যানসিটি। প্রথমার্ধেই দুটি করে গোল করেন এই দুই তরুণ ফুটবলার। বিরতির পর হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তারা। 

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর