আপনি পড়ছেন

দখলকৃত পশ্চিম তীরের রামাল্লায় এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে দুই ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি সৈন্যরা। এ সময় আরও এক ফিলিস্তিনি আহত হন। সোমবার (৩ অক্টোবর) ভোরে ফিলিস্তিনি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে এ ঘটনা ঘটে।

palestine israel twsd ফিলিস্তিনি শিশু ও কিশোর-তরুণদের বেছে বেছে হত্যা করছে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী

জানা যায়, সোমবার ভোর ৪ টার দিকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর কয়েকটি সাঁজোয়া যান রামাল্লায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ফিলিস্তিনি বসতির কাছে অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর পাশের সড়কে চলাচলরত একটি গাড়ি লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় সৈন্যরা। এতে গাড়ির দুই আরোহী বাসেল কাসেম বাসবুস (১৯) ও খালেদ ফাজি আনবার (২১) নিহত হয়। গুলিতে রাফাত সালামা হাবাশ (১৯) নামে আরেক ফিলিস্তিনি তরুণ আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিহত দুই ফিলিস্তিনি আল-জাজুন শরণার্থী শিবিরের বাসিন্দা। প্রতিদিনের মতো তারা ভোরে ঘর থেকে বেরিয়ে কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। ঘটনায় আহত রাফাত নিকটবর্তী বির জায়ত এলাকার অধিবাসী। গুলিবর্ষণের পরপর ইসরায়েলি সৈন্যরা হতাহতদের গাড়িতে করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়।

ফিলিস্তিনি একটি সূত্র জানায়, ইসরায়েলি বাহিনী যখন গুলিবিদ্ধ তরুণদের নিয়ে যাচ্ছিল, তখনও তারা জীবিত ছিল এবং তাদের শরীর থেকে রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্যকর্মীরা তাদের কাছে যেতে চাইলে সৈন্যরা বাধা দেয়।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, তারা কয়েকজন ফিলিস্তিনিকে গ্রেপ্তারের উদ্দেশ্যে ওই এলাকায় অবস্থান নিয়েছিল। এ সময় দ্রুতগামী একটি গাড়ি তাদের দিকে এগিয়ে এলে সৈন্যরা সেটিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এতে দুইজন নিহত ও একজন আহত হয়।

জানা গেছে, দখলদার বাহিনী আজ ভোরে পশ্চিম তীরের বিভিন্ন বসতি থেকে কমপক্ষে ১৬ ফিলিস্তিনিকে ধরে নিয়ে গেছে। এ সময় তারা বেশকিছু বাসাবাড়িতে তল্লাশি ও স্থানীয়দের হয়রানি করে।

চলতি সপ্তাহে দখলদার বাহিনীর হাতে প্রতিদিনই ফিলিস্তিনি হত্যার খবর পাওয়া যাচ্ছে। গত চারদিনে কমপক্ষে ছয় শিশু-কিশোর দখলদার বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে। বিশেষত ফিলিস্তিনি শিশু ও কিশোর-তরুণদের বেছে বেছে হত্যা করছে তারা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর